বিশ্বের শীর্ষ গাড়ির ব্র্যান্ডগুলো

Published: 18 October 2020, 4:15 PM

পোস্ট ডেস্ক :

মার্সিডিস বেঞ্জ
মার্সিডিস বেঞ্জ হচ্ছে একটি জার্মান মোটরগাড়ি, বাস, ট্রাক এবং কোচ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান। কার্ল বেঞ্জ ১৮৮৬ সালের জানুয়ারিতে সর্বপ্রথম মার্সিডিস বেঞ্জের বেঞ্জ পেটেন্ট মোটরওয়াগেন নামে পেট্রলক্ষমতাসম্পন্ন গাড়ি তৈরি করে। একই বছর গোটলিব ডাইমলার এবং ইঞ্জিনিয়ার ভিলহেল্ম মাম্বাখ একটি স্টেজকোচকে পেট্রল ইঞ্জিনে পরিবর্তন করে। ডাইমলার মোটরেন গেসেলসাফর্ট ১৯০১ সালে সর্বপ্রথম মার্সিডিস মোটরগাড়ি বাজারে ছাড়ে। মার্সিডিস বেঞ্জ বিশ্বে সর্বাপেক্ষা সুপরিচিত এবং প্রতিষ্ঠিত মোটরগাড়ির ব্র্যান্ডের একটি। এটি বিশ্বের সর্বাপেক্ষা পুরনো মোটরগাড়ির ব্র্যান্ড, যা এখনো বিদ্যমান আছে।

 

জিএম

 


জেনারেল মোটরস (জিএম) যুক্তরাষ্ট্রের একটি গাড়ি নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান। ১৯০৮ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর প্রতিষ্ঠিত এবং এর প্রধান অফিস যুক্তরাষ্ট্রের ডেট্রয়েটে অবস্থিত। গ্লোবাল ইন্ডাস্ট্রি সেলসের পরিমাপ হিসেবে জিএম বিশ্বের সবচেয়ে বড় গাড়ি নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানটির গাড়ি এবং ট্রাক ৩৫টি দেশে তৈরি করে এবং বুইক, ক্যাডিলাক, সেব্রোলেট, জিএম দাইয়ু, জিএমসি, হোল্ডেন, হামার, অপেল, পন্টিয়াক, সাব, স্যাতুম, ভক্সাল এবং উলিং বিভিন্ন ব্র্যান্ডের নামে বিক্রি করে।

জেনারেল মোটরস কম্পানি, সাধারণভাবে জেনারেল মোটরস (জিএম) নামে পরিচিত, ডেট্রয়েটের সদর দপ্তরটি একটি আমেরিকান বহুজাতিক করপোরেশন, যা ডিজাইন, তৈরি, বাজার এবং যানবাহন এবং গাড়ির অংশগুলো বিতরণ করে এবং আর্থিক সেবা বিক্রি করে।

টয়োটা


টয়োটা মোটর করপোরেশন একটি জাপানি গাড়ি নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান। এর সদর দপ্তর জাপানে অবস্থিত। ২০১০ সালে টয়োটা সারা বিশ্বে ৩০০,৭৩৪ জন মানুষকে চাকরি দেয় এবং ২০১১ সালে জেনারেল মোটরস এবং ফোকসভাগেন গ্রুপকে পেছনে ফেলে উৎপাদনের দিক দিয়ে পৃথিবীর তৃতীয় বৃহত্তম গাড়ি প্রস্তুতকারক হয়ে ওঠে। উপার্জনের দিক দিয়ে বর্তমানে টয়োটা পৃথিবীর ১১তম বৃহত্তম কম্পানি। ২০১২ সালের জুলাই মাসে কম্পানিটির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, কম্পানিটি ২০০ মিলিয়ন যানবাহন প্রস্তুত করেছে। এটি সিডান, এসইউভি, হালকা ট্রাক প্রভৃতি শ্রেণির গাড়ি নির্মাণ করে থাকে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে এর কারখানা রয়েছে।

আনুষ্ঠানিকভাবে টয়োটা মোটর কম্পানির জন্ম ১৯৩৭ সালের ২৮ আগস্ট।

হোন্ডা


হোন্ডা মোটর কম্পানি মূলত অটোমোবাইল ও মোটরসাইকেল উৎপাদনের জন্য বিখ্যাত। ১৯৫৯ সাল থেকে হোন্ডা পৃথিবীর বৃহত্তম মোটরসাইকেল নির্মাতা। হোন্ডা পৃথিবীর বৃহত্তম ইঞ্জিন নির্মাতা। হোন্ডা প্রতিবছর এক কোটি ৪০ লাখ ইঞ্জিন উৎপাদন করে। ২০০১ সাল থেকে হোন্ডা জাপানের দ্বিতীয় বৃহত্তম অটোমোবাইল নির্মাতা। হোন্ডার প্রতিষ্ঠাতা সাচিওরো হোন্ডা মেকানিক হিসেবে আর্ট সোকাই গ্যারেজে কাজ করতেন। সেখানে তিনি গাডির টিউনিংয়ের কাজ করতেন, যা হচ্ছে গাড়িগুলোকে রেসিং কার হিসেবে তৈরি করা। হোন্ডা টোকিও স্টক এক্সচেঞ্জ এবং নিউ ইয়র্ক স্টক এক্সচেঞ্জ ছাড়াও ওসাকা, নাগোয়া, সাপ্পোরো, কিয়োটো, ফুকুওকা, লন্ডন, প্যারিস এবং সুইজারল্যান্ডের স্টক এক্সচেঞ্জের অন্তর্ভুক্ত।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •