বৃহস্পতিবার সারাদেশে বিএনপির বিক্ষোভ

Published: 24 May 2022, 5:46 PM

পোস্ট ডেস্ক :


বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও নোবেল বিজয়ী অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ ইউনূসসহ দেশে সিনিয়র সিনিজেনদের সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অসম্মানজনক বক্তব্যের প্রতিবাদে আগামী ২৬শে মে বিক্ষোভ কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি। মঙ্গলবার গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের স্থায়ী কমিটির এই সিদ্ধান্তের কথা জানান বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। গত ২৩মে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে স্থায়ী কমিটির বৈঠক হয়। বৈঠকের সিদ্ধান্তসমূহ এই সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব তুলে ধরেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, স্থায়ী কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ২৬শে মে ঢাকা ছাড়া সকল মহানগর ও জেলা সদরে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনগুলো যৌথভাবে বিভোক্ষ সমাবেশ করবে। এই বিক্ষোভ হবে বলে জানান মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

‘বন্যায় দুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর আহবান’
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, স্থায়ী কমিটির সভায় দুর্গত এলাকায় সরকারি ত্রাণ তৎপরতার একেবারেই অপ্রতুল হওয়ায় অসন্তোষ প্রকাশ করা হয়। একদিকে যখন বন্যা দুর্গত মানুষের ত্রাণের জন্য আহজারি করছে সেই সময়ে জনৈক মন্ত্রীর ত্রাণ বিতরণের সময় সাহায্য প্রার্থী হাজার মানুষের ওপর পুলিশি লাঠিচার্জের ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়। বন্যার্তদের উপরে এই আক্রমণ আওয়ামী লীগের স্বভাবজাত অমানবিক ও সন্ত্রাসী কার্যকলাপের প্রতিফলন। সিলেটের বন্যাউপদ্রুত এলাকায় বিএনপির পক্ষ থেকে দুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়ানো এবং ত্রাণ কার্যপরিচালনার জন্য জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। বৃহত্তর সিলেট জেলার বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের সকল নেতা-কর্মীদের বন্যা দুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহবান জানানো হয়।

সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র দলের নেতা-কর্মীদের ওপর ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী হামলার ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানান বিএনপি মহাসচিব।