বালাগঞ্জে সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে এক ব্যক্তি নিহত

Published: 7 October 2020, 11:03 AM

সিলেট অফিস :  সিলেটের বালাগঞ্জে পাওনা টাকাকে কেন্দ্র করে দুইজনের মধ্যে সৃষ্ট সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

নিহত ছমির মিয়া (৩৩) উপজেলার দেওয়ান বাজার ইউনিয়নের আহমদপুর গ্রামের রইছ আলীর পুত্র। তিনি পেশায় ছিলেন একজন রাজমিস্ত্রী। মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) দিবাগত রাতে মোরার বাজার এলাকায় ঘটনাটি ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দিবাগত রাত প্রায় ৮টার দিকে উপজেলার মোরার বাজারের দক্ষিণে আহমদপুর গ্রামের মছব্বির আলীর চায়ের দোকানে নিহত ছমির মিয়ার ভাগনে পারভেজের সাথে চা দোকানী মছব্বিরের ২২০ টাকা পাওনা নিয়ে কথা কাটাকাটির জেরে সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়।

এসময় ভাগনের সাথে সংঘর্ষ দেখে ছমির মিয়া এগিয়ে আসলে এক পর্যায়ে মছব্বিরসহ তার পক্ষের লোকজন ছমিরকে এলোপাথাড়ি কিল-ঘুষিসহ মারধর করে। এসময় ছমির মিয়া মাটিতে পরে গেলে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরতাল রির্পোট তৈরির পর ময়না তদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করেছে।

রাতেই বালাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জসহ অতিরিক্ত পলিশ সুপার (ওসমানীনগর সার্কেল) মো. রফিকুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। আরও  বালাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচাজ গাজী আতাউর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘অভিযুক্তদের গ্রেফতারে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

এ ব্যাপারে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।’ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ওসমানীনগর সার্কেল) মো. রফিকুল ইসলাম বলেন,‘পাওনা টাকার সৃষ্ট সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে এক পক্ষের এলোপাথাড়ি মারপিঠের কারণে বুকে আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে ছমির মিয়ার মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিক তদন্তে প্রতীয়মান হয়েছে।’ খুব দ্রুত জড়িতদের গ্রেফতার করা হবে বলে আশাবাদী তিনি।