মমতার চোট-চিকিৎসার রিপোর্ট প্রকাশ করা হোক, দাবি বিজেপির

Published: 16 March 2021, 5:50 AM

পোস্ট ডেস্ক : ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি গত রবিবার যখন কলকাতার রাজপথে হুইলচেয়ারে বসে প্রচার শুরু করেন, তখন তার পায়ে আঘাতের গুরুত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে বিজেপি।

এতো অল্প সময়ে মমতা কীভাবে ‘সুস্থ’ হলেন তা জানতে চেয়ে পশ্চিমবঙ্গ বিজেপি নির্বাচন কমিশনে গেছে।
নন্দীগ্রামে মমতা ব্যানার্জির পায়ে আঘাত পাওয়া নিয়ে আগেও তদন্তের দাবি তুলেছে বিজেপি। এবার ওই চোটের পর কলকাতায় এসএসকেএম হাসপাতালে ঠিক কী চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে, তা প্রকাশ্যে নিয়ে আসার দাবি তোলা হয়েছে।
গত রবিবার এই দাবি জানিয়ে নির্বাচন কমিশনকে চিঠি পাঠিয়েছে বিজেপি। চিঠিতে বলা হয়েছে, পায়ে চোট পাওয়ার পর মমতার কী চিকিৎসা করা হয়েছে, তা প্রকাশ্যে এনে ‘রাজ্যবাসীকে সত্য জানানো হোক’।
এদিকে গত বুধবার সন্ধ্যায় নন্দীগ্রামের বিরুলিয়া বাজারের কাছে মমতা ব্যানার্জি আহত হওয়ার পর থেকেই তোলপাড় পশ্চিমবঙ্গ ও জাতীয় রাজনীতি।
মমতা ব্যানার্জি অভিযোগ করেছেন, তাকে ঠেলে ফেলা হয়েছে। এর পেছনে চক্রান্তের অভিযোগে সরব হয় তৃণমূলও। পরে টুইট করে মুখ্যমন্ত্রীর দ্রুত আরোগ্য কামনা করে রাজ্যে বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয় উচ্চ পর্যায়ের তদন্তের দাবি তোলেন।
পশ্চিমবঙ্গ বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ সিবিআই তদন্ত চান। তদন্তের দাবি নিয়ে রাজ্য বিজেপি কমিশনের কাছেও গেছে। এ বার চিকিৎসা নিয়েও কার্যত তদন্ত চাইছে বিজেপি।
কমিশনকে দেওয়া চিঠি প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা শিশির বাজোরিয়া বলেন, তৃণমূল একভাবে আক্রমণ ও চক্রান্তের অভিযোগ তুলে আসছে। কিন্তু কী এমন চিকিৎসা হলো যে, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্লাস্টার খোলা গেল, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে মুখ্যমন্ত্রী বাড়ি ফিরলেন এবং ৭২ ঘণ্টার মধ্যে প্রচারে বেরিয়ে পড়লেন, সেটা রাজ্যবাসীর জানা উচিত।
শিশির আরো বলেন, কোন অত্যাধুনিক চিকিৎসার মাধ্যমে মুখ্যমন্ত্রী এতো তাড়াতাড়ি সুস্থ হলেন সেটাও জানা দরকার। তাই আমরা কমিশনের কাছে দাবি জানিয়েছি, এসএসকেএম-এ চিকিৎসার রিপোর্ট প্রাকাশ্যে আনা হোক।