লন্ডনে হত্যা মামলার আসামীর গাড়ীতে সিসিক মেয়র আরিফ।। চলছে আলোচনা-সমালোচনা

Published: 14 May 2022, 5:47 PM

পোস্ট ডেস্ক :


সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীকে চাঞ্চল্যকর ছাত্রদল নেতা হত্যা মামলার পলাতক আসামি আব্দুর রকিব চৌধুরীর সঙ্গে দেখা গেছে। রকিব সিলেট মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এবং মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সহ প্রচার সম্পাদক ফয়জুল হক রাজু হত্যা মামলার প্রধান আসামি। সিসিক মেয়র ব্যক্তিগত সফরে লন্ডন অবস্থান করছেন।

প্রায় ৪ বছর আগে সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি নেতা আরিফ মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর রাতে বিজয় মিছিল শেষে মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সহ প্রচার সম্পাদক ফয়জুল হক রাজুকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এরপর এই হত্যা মামলার প্রধান আসামি ও ছাত্রদল নেতা রকিব গ্রেপ্তার এড়াতে পালিয়ে লন্ডন চলে যান।

সম্প্রতি লন্ডনে রকিবসহ কয়েকজনের সঙ্গে মেয়র আরিফকে বৈঠক করতে দেখা যায়। এমনকি রকিবের সঙ্গে একই গাড়িতে দেখা গেছে মেয়র আরিফকে। এসব ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ায় তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।

২০১৮ সালের ১১ আগস্ট সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর বিজয় মিছিল শেষে মেয়র আরিফের বাসা থেকে ফেরার পথে খুন হন রাজু। এ ঘটনায় মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রকিবকে প্রধান আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহতের চাচা যুবলীগ নেতা দবির আলী। ওই মামলায় রকিব ছাড়াও জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেনসহ ২৩ জনের নাম উল্লেখ করেন তিনি।

২০১৯ সালের ১২ মে ছাত্রদলের তৎকালীন কেন্দ্রীয় নেতা রকিব, দেলোয়ারসহ ২৬ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। মেয়র আরিফের ঘনিষ্টজন হিসেবে পরিচিত রকিবের নির্দেশে রাজুকে খুন করা হয় বলে অভিযোগপত্রে পুলিশ উল্লেখ করে। এ মামলায় আসামিদের মধ্যে দেলোয়ারসহ ৩ জন কারাগারে রয়েছেন। তবে রকিবসহ বাকি ২৩ আসামি পলাতক রয়েছেন।

গত ৮ মে মেয়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে স্ত্রী সামা হক চৌধুরীসহ কয়েকজনকে নিয়ে মেয়র আরিফ লন্ডনে যান। সেখানে তিনি পারিবারিক ঘনিষ্টজনদের পাশাপাশি রাজনৈতিক ও সামাজিক নেতৃবৃন্দের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এছাড়া লন্ডনের বাংলা গণমাধ্যমের অফিসেও তিনি গেছেন, সাক্ষাৎকার করেছেন। এসব জায়গায় যাওয়া-আসার সময় মেয়র আরিফের সঙ্গে গাড়িতে পলাতক রকিবকে দেখা গেছে।

গত ১২ মে সিলেট জেলা ছাত্রদলের সহ যোগাযোগ বিষয়ক সম্পাদক ওলিউর রহমান চৌধুরী শাহজাহানের ফেসবুকে মেয়র আরিফের সঙ্গে পলাতক রকিবের একাধিক ছবি দেখা যায়। ছবিতে রকিবকেও ট্যাগ করা হয়। এতে শাহজাহান লিখেন, ‘সিলেট সিটি করপোরেশনের মাননীয় মেয়র ও বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য জননেতা আরিফুল হক চৌধুরীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান নেতৃবৃন্দ।’

এ প্রসঙ্গে নিহত ছাত্রদল নেতা রাজুর চাচা ও যুবলীগ নেতা দবির আলী ক্ষোভ প্রকাশ করে রকিবকে দেশে ফিরিয়ে আনার দাবি জানান। তিনি বলেন, সাংবাদিকদের লেখালেখির ফলে নির্মম হত্যা মামলার বিচার বর্তমানে সাক্ষ্যগ্রহণ পর্যায়ে রয়েছে। একইসঙ্গে প্রধান আসামি রকিবকে দেশে ফিরিয়ে আনতে সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা কামনা করেন বলেন, সবাই সহযোগিতা করলে ন্যায়বিচার পাব বলে আশা করি।

বর্তমানে লন্ডন সফরে থাকায় হত্যা মামলার পলাতক আসামির সঙ্গে বিভিন্ন জায়গায় ঘনিষ্টভাবে মেলামেশা সম্পর্কে মেয়র আরিফের বক্তব্য পাওয়া যায়নি। রোববার মেয়র আরিফের দেশে ফেরার কথা রয়েছে বলে সিসিকের সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে।