তৃতীয় রাউন্ডের ভোটের পর শীর্ষে ঋষি সুনাক, দৌড়ে মাত্র ৪

Published: 19 July 2022, 8:43 AM

পোস্ট ডেস্ক :


বরিস জনসনকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে প্রতিস্থাপন করার দৌড়ের অংশ হিসেবে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের কনজারভেটিভ পার্টির সদস্যদের মধ্যে অনুষ্ঠিত সর্বশেষ রাউন্ডের ভোট গণনার পর শীর্ষ স্থান ধরে রাখলেন প্রাক্তন ইউকে চ্যান্সেলর ঋষি সুনাক। সোমবার ছিল কনজারভেটিভ আইন প্রণেতাদের ভোটের পালা। ৩৫৮টি ভোটের মধ্যে সেখানে সর্বোচ্চ ভোট পড়ে ঋষি সুনকের পক্ষেই, ১১৫টি ভোট পান সুনাক। এই নিয়ে আপাতত নির্বাচনের তিনটি ধাপেই এগিয়ে রয়েছেন ঋষি সুনাক। তাঁর অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী হলেন বিদেশ সচিব ট্রুস টুগেনডাট ও ক্ষুদ্র বাণিজ্য মন্ত্রী মর্ডান্ট। তবে সোমবারের নির্বাচনে ট্রুস মাত্র ৩১টি ভোট পাওয়ায় প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড় থেকে ছিটকে গিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। পরবর্তী ধাপে কনজারভেটিভ পার্টির ২০ হাজার সদস্যের ভোট গ্রহণের পরই আগামী ৫ সেপ্টেম্বর ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন করা হবে। প্রতিদ্বন্দ্বীদের তালিকা আরও ছোটো করতে মঙ্গলবার পরবর্তী রাউন্ডের ভোট অনুষ্ঠিত হবে বলে আশা করা হচ্ছে। সর্বশেষ দুই প্রার্থীর ভাগ্য নির্ধারণ করবে ১ লক্ষ ৬০ হাজার ভোটার। ৫সেপ্টেম্বর নতুন টোরি নেতা এবং প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করা হবে।ক্ষমতাসীন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সরকার সোমবার একটি আস্থা ভোট জিতেছে , গভর্নিং কনজারভেটিভ পার্টির সদস্যরা একটি জাতীয় নির্বাচন এড়াতে ডিসপেনশনের সমর্থনে ভোট দিয়েছে।

সরকার ৩৪৯ এর মধ্যে ২৩৮ টি ভোট পেয়ে জয়লাভ করে।বিরোধী লেবার পার্টি জনসনকে অবিলম্বে একজন তত্ত্বাবধায়ক নেতা দ্বারা প্রতিস্থাপিত করার দাবি করার পর আস্থা ভোট অনুষ্ঠিত হয়। জনসন জুলাইয়ের শুরুতে টোরি প্রধানের পদ থেকে পদত্যাগ করেছিলেন, বলেছিলেন যে পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত না হওয়া পর্যন্ত তিনি প্রধানমন্ত্রী হিসাবে থাকবেন। ব্রিটেনের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের নামে একের পর এক বিতর্ক আগেই ছিল, গত মাসেই ফের নতুন করে বিতর্কে জড়াতেই ব্রিটেনে মন্ত্রিসভা থেকে ইস্তফা দিতে শুরু করেছিলেন মন্ত্রীরা। প্রথমেই ইস্তফা দিয়েছিলেন অর্থমন্ত্রী ঋষি সুনাক ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ। এর একদিনের মধ্যেই আরও প্রায় ৫০জন মন্ত্রী ইস্তফা দেওয়ায়, বাধ্য হয়েই প্রধানমন্ত্রী পদ ছাড়েন বরিস জনসন। জল্পনা তখন থেকেই ছিল, গত ৮ জুলাই ঋষি সুনাক নিজেই ঘোষণা করেন যে, ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে নাম লেখাচ্ছেন তিনি। বর্তমানে জোরকদমে চলছে প্রচার।