সেক্সবোম কিম কারদাশিয়ান-কেনি ওয়েস্টের বিচ্ছেদ আবেদন

Published: 20 February 2021, 7:02 AM

পোস্ট ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের সেক্সবোম সেলিব্রেটি হিসেবে পরিচিত কিম কারদাশিয়ান তার স্বামী র‌্যাপার কেনি ওয়েস্টের সঙ্গে বিচ্ছেদের আবেদন করেছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের মিডিয়ায় এ খবর ছড়িয়ে পড়েছে। কয়েক মাস ধরেই তাদের দাম্পত্য জটিলতা নিয়ে গুঞ্জন পাওয়া যাচ্ছিল। কিন্তু সেলিব্রেটি বিষয়ক একটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট রিপোর্ট করেছে, এবার তারা একেবারে বিচ্ছিন্ন হয়ে যেতে চান। এ বিষয়ে আদালতে আইনি প্রক্রিয়ায় আবেদন করেছেন। এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি। এতে আরো বলা হয়েছে, রিয়েলিটি তারকা কিম কারদাশিয়ান ও কেনি ওয়েস্ট দু’জনেই যৌথভাবে আইনগত বিষয় এবং সন্তানরা কার হেফাজতে থাকবে সে বিষয়ে আদালতে আবেদন করেছেন। উল্লেখ্য, তাদের দাম্পত্য জীবন মাত্র সাত বছরের।
তাদের রয়েছে চারটি সন্তান। অনলাইন বিবিসি বলছে, বিশ্বে সবচেয়ে বেশি পরিচিত, স্বীকৃত যে কয়েকজন তারকা আছেন বর্তমানে, তার মধ্যে কিম কারদাশিয়ান ও কেনি ওয়েস্ট অন্যতম। নিজেদের দক্ষতায় তারা যার যার অবস্থানে পেয়েছেন আকাশচুম্বী সফলতা। কিম কারদাশিয়ান প্রথম ই! টেলিভিশন রিয়েলিটি সিরিজে তার নিজের পরিবার নিয়ে কথা বলতে আসেন ২০০৭ সালে। এতে তিনি প্রথমেই বিখ্যাত হয়ে ওঠেন। তারপর থেকে ক্রমশ সফলতা আর জনপ্রিয়তা তাকে নিয়ে গেছে আকাশের কাছাকাছি। ওই টেলিভিশনের ২১তম এবং চূড়ান্ত পর্বগুলো প্রচারিত হওয়ার কথা রয়েছে আগামী বছর।
কিম কারদাশিয়ান বিখ্যাত হয়েছেন, পরিচিতি পেয়েছেন নানা কারণে। এক হলো, তার রগরগে যৌনদৃশ্যের ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে ইন্টারনেট দুনিয়ায়। তাতে সেলিব্রেটি থেকে শুরু করে বাকি বিশ্ব হুমড়ি খেয়ে পড়ে নেটে। এর বাইরে তিনি যেসব পোশাক পরেছেন, তাকে পোশাক না বলে শরীর প্রদর্শন বলাই বেশি সমীচীন। বিভিন্ন ইভেন্টে এমন সব পোশাক পরেছেন, যা রক্ষণশীল সমাজে প্রকাশ করার মতো নয়। এসব করে তিনি মাতিয়ে রেখেছেন বিশ্ববাসীকে। বিখ্যাত হয়ে ওঠার সঙ্গে সঙ্গে এই দম্পতি থেমে থাকেননি। তারা মোবাইল অ্যাপ থেকে শুরু করে মেকআপ ব্যবসা পর্যন্ত খুলেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের বিখ্যাত ম্যাগাজিন ফোরবসের হিসাব মতে কিম কারদাশিয়ান নিজে প্রায় ৭৮ কোটি ডলারের মালিক।

ওদিকে কেনি ওয়েস্ট র‌্যাপ সঙ্গীতের জগতে ১৫ বছরেরও বেশি সময় আধিপত্য বিস্তার করে আছেন। বিখ্যাত যেসব ব্যক্তির নাম আছে এই সঙ্গীতে, তার মধ্যে তিনি অন্যতম। তিনি গ্রামি পুরস্কারবিজয়ী সঙ্গীতশিল্পী। এর বাইরে তিনি ফ্যাশন ডিজাইনার হিসেবে পেয়েছেন সফলতা। কিম কারদাশিয়ানের সঙ্গে তার বন্ধুত্ব ছিল অনেক আগে থেকেই। কিন্তু ২০১০ সালেই প্রথম কিম কারদাশিয়ানের পারিবারিক রিয়েলিটি শোতে প্রথম উপস্থিত হন। ২০১৩ সালের জুনে তাদের প্রথম কন্যা নর্থ-এর জন্ম হয়। এক পর্যায়ে সান ফ্রান্সিসকো জায়ান্টস-এর বেসবল স্টেডিয়ামে হায়ার করা হয়েছিল কেনি ওয়েস্টকে। সেখানে এক অর্কেস্ট্রায় তিনি কিম কারদাশিয়ানের পরিবারের সামনে কিম কারদাশিয়ানকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়ন। তারা ২০১৪ সালের মে মাসে ইতালিতে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। বিয়ের অনুষ্ঠানে তাদের চুম্বনের ছবি ওই সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে এ যাবতকালের সবচেয়ে বেশি লাইক পায়। এই পয়েন্ট থেকে কিম কারদাশিয়ান ও তার বোনেরা সামাজিক যোগাযোগ মিডিয়ায় সেনসেশনাল হয়ে ওঠেন। যেন পুরো পরিবার মিলে আর্ট। সবাই খ্যাতি পেতে থাকেন। কিম কারদাশিয়ানের অন্য বোনেরাও খুল্লামখুল্লা হয়ে ওঠেন। তাতে মাত হয়ে যায় দুনিয়া। এর পাশাপাশি ব্যবসায়ও সফলতা পান।
বিয়ের পরের বছর কিম কারদাশিয়ান তাদের বিবাহিত জীবনে প্রথম ছেলে সন্তান সেইন্ট ওয়েস্টের জন্ম দেন। এই সন্তান জন্মদানের সময় স্বাস্থ্যগত যেসব ঝুঁকির মুখোমুখি হয়েছিলেন তার প্রেক্ষিতে গর্ভ ভাড়া নেয়ার মাধ্যমে তারা আরও দুটি সন্তান শিকাগো এবং পাম-এর জনক-জননী হন। তারপর থেকে এমন কোনো দিন নেই, যেদিন তাদেরকে নিয়ে ট্যাবলয়েড পত্রিকাগুলোর প্রচ্ছদ প্রতিবেদন হয়নি। বিশেষ করে ২০১৬ সালে প্যারিসে যখন অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে কিম কারদাশিয়ানের সব কিছু কেড়ে নেয় ডাকাতরা তখন তিনি সব ট্যাবলয়েড পত্রিকার প্রথম পৃষ্ঠা দখল করে রাখেন।

মজার ব্যাপার হলো গত বছর ৩রা নভেম্বর অনুষ্ঠিত যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন কেনি ওয়েস্ট। কিন্তু এক্ষেত্রে তার জনপ্রিয়তা এতটাই তলানিতে ছিল যে, কেউ তার নামটিও নির্বাচনে উচ্চারণ করেনি বলেই মনে হয়। নির্বাচনী প্রচারণার সময় জনগণের সামনে তিনি হাজির হন খুব খোলামেলাভাবে। অনলাইনে কিছু পোস্ট দেন। এতে তার বিরুদ্ধে উদ্বিগ্ন হয়ে ওঠেন কিম কারদাশিয়ান। এক পর্যায়ে এ নিয়ে তিনি কথা বলতে শুরু করেন। তিনি বলেন, তার স্বামীর ‘বাইপোলার ডিজঅর্ডার’ বা মানসিক ব্যাধি আছে। তিনি একজন মেধাবী কিন্তু অত্যন্ত জটিল মানুষ। তার মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে জনগণ ও মিডিয়ার কাছ থেকে সহানুভূতি প্রত্যাশা করেন তিনি। কয়েক মাস ধরে তাদের বিচ্ছেদের কথা লোকমুখে ছড়িয়ে পড়ে। বিশেষ করে কিম কারদাশিয়ান যখন সুপারিচিত আইনজীবী লরা ওয়াসারকে তার নিজের পক্ষে নিয়োজিত করেন, তখন এই গুজব আরো ডালপালা ছড়ায়।
ওদিকে পেইজ সিক্স রিপোর্ট করেছে যে, তাদের এই বিচ্ছেদের আবেদন করা হয়েছে জানুয়ারির একেবারে শুরুতে। এতে আরো বলা হয়েছে, উৎসবের এই মৌসুমে কিম কারদাশিয়ানের সঙ্গে অবস্থান করছেন না কেনি ওয়েস্ট। তিনি অবস্থান করছেন ক্যালিফোর্নিয়াতে তার নিজের উইয়োমিং র‌্যাঞ্চে।