বিপন্ন মানবতার শেষ কোথায়-বামজোট হবিগঞ্জ

Published: 12 July 2021, 7:17 AM

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি :


সেজান জুস কারখানার ৫২ শ্রমিককে গেইটে তালা লাগিয়ে আগুনে পুড়ে গণহত্যা, নিহত শ্রমিকদের আজীবন আয়ের সমপরিমাণ ক্ষতিপূরণ প্রদান এবং আহতদের সুচিকিৎসা ও সারাজীবন ভরণপোষণসহ পূর্নবাসন করার দাবিতে হবিগঞ্জ জেলা বামজোট স্থানীয় আর.ডি হল সম্মুখে দুপুর ১২টায় বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করে। জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড পীযুষ চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে ও জেলা বাসদ (মার্কসবাদী) সংগঠক শফিকুল ইসলামের পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- জেলা বাসদ সমন্বয়ক এড. জুনায়েদ আহমেদ, শ্রমিক নেতা আব্দুল জব্বার, শংকর শুক্লবৈদ্য, বিজ্ঞান আন্দোলন মঞ্চের সংগঠক আলিফ রায়হান প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন সিপিবি নেতা চৌধুরী মহিবুন্নুর ইমরান, বাসদ নেতা হুমায়ুন খান, আজমান আহমেদ, মোঃ আহাদ মিয়া, বিষ্ণু সরকার, জন্টু সরকার ও সামছুর রহমান।

সভায় বক্তাগণ বলেন- কারখানার অতি মুনাফালোভী মালিক ও কর্মকর্তারা আগুন লাগার পর কারখানার সমস্ত গেইট তালাবদ্ধ করে ৫২ জন শ্রমিককে পুড়িয়ে হত্যা করেছে। আরো ৮০ জনের মতো স্বজনহারা তাদের স্বজনদের খুঁজে বেড়াচ্ছে। নিহতদের অধিকাংশই শিশু শ্রমিক। সরকার মালিকপক্ষ ও কারখানার পরিদর্শক এর দায় কিছুতেই এড়াতে পারে না। শ্রমিকের শ্রমে ঘামে দেশের অর্থনীতির চাকা সচল হয়। অথচ এই শ্রমিক জনগোষ্ঠীকে আজ আগুণে পুড়ে মারছে।

 

তাই সকল পেশার শ্রমিকদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কর্মক্ষেত্রে শ্রমিকের সুরক্ষা, অধিকার এবং মর্যাদার প্রতিষ্ঠার লড়াই জোরদার করতে হবে। কঠোর লডডাউন চললেও কারখানা খোলা রেখে শ্রমিকদেরকে করোনা ঝুঁকিতে রেখেছে সরকার এবং মালিকপক্ষ। এ অবস্থা এবং ব্যবস্থা চলতে দেয়া যায় না। দেশের বিবেকবান মানুষ শ্রমিকদের অধিকার প্রতিষ্ঠার লড়াই সংগ্রামে সাথে থাকবে।

 

  • 9
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    9
    Shares