লন্ডনে পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত

Published: 11 May 2022, 3:41 PM

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি :


গত ৭ মে শনিবার গোলাপগঞ্জ উপজেলা সোশ্যাল ট্রাস্ট ইউকের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয়েছে জমজমাট পিঠা উৎসব, ঈদ পূর্ণমিলনী এবং বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
লন্ডনের ম্যানরপার্কস্থ লন্ডন ভ্যানুতে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশের গ্রাম-বাংলার সংস্কৃতির ধারক এ পিঠা উৎসবটি পরিণত হয় বাঙালির মিলনমেলায়। উচ্চারিত হয় বাঙালি সংস্কৃতির জয় গান। ব্রিটেনে জন্ম নেওয়া ও বেড়ে ওঠা নতুন প্রজন্মের কাছে বাঙালি সংস্কৃতিকে তুলে ধরাই ছিল এ পিঠা উৎসবের অন্যতম লক্ষ্য।
অনুষ্ঠানের শুরুতে আয়োজকদের পক্ষ থেকে সবাইকে স্বাগত জানান ট্রাস্টের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আব্দুল বাছিত ও ট্রেজারার বদরুল আলম বাবুল। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জেনারেল সেক্রেটারি সাংবাদিক আনোয়ার শাহজাহান। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন ট্রাস্টি আমীর হোসেন।
অনুষ্ঠানমালায় ছিল আলোচনা সভা, গান, কবিতা, পুঁথি পাঠ, কৌতুক, মনোজ্ঞ পরিবেশনাসহ নানা কর্মসূচি। হাসি উচ্ছ্বাস, শুভেচ্ছা, অভিনন্দন
এসবের মধ্য দিয়ে চমৎকার এই আয়োজনে বাঙালি সংস্কৃতির জয়গান প্রতিধ্বনিত হয়।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত সবাইকে কিছুটা সময়ের জন্য হলেও আপ্লুত করে তোলে। পিঠা উৎসবে গোলাপগঞ্জ এলাকার লোকজন ছাড়াও বিপুলসংখ্যক বাংলাদেশি কমিউনিটির লোকজন উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, এ ধরনের আয়োজন প্রবাসে জন্ম নেওয়া ও বেড়ে ওঠা আমাদের নতুন প্রজন্মকে বাংলাদেশের কৃষ্টি-কালচারের সঙ্গে পরিচিত করার বড় সুযোগ তৈরি করে দেয়। সেই সঙ্গে এ ধরনের অনুষ্ঠান নতুন প্রজন্মকে শেকড়ের সন্ধান দেবে।
অনুষ্ঠানে গান, পুঁথি পাঠ, কবিতা আবৃত্তিতে অংশ গ্রহন করেন পাশাপাশি বক্তব্য রাখেন, ডাক্তার হাফিজ উদ্দীন আহমদ, ড. আব্দুল আজিজ তকি, আবজল হোসেন, লেখক ফারুক আহমদ, ইছবাহ উদ্দিন আহমদ, জয়নাল উদ্দিন, মাহমুদুর রহমান শানুর, আলহাজ্ব মো: আবুল কালাম, ফেরদৌস আলম, আফসর হোসেন এনাম, হাবিবুর রহমান, সাংবাদিক এনাম চৌধুরী, স্মৃতি আজাদ, কবি হাফসা ইসলাম নুর, কবি শাহারা খান, কবি নুরজাহান রহমান, ইয়াইয়া খান, শেখ রওশন আরা নীপা প্রমুখ।
গোলাপগঞ্জ উপজেলা সোশ্যাল ট্রাস্টের পক্ষে বক্তব্য রাখেন, মিছবাহ জামাল, জহির হোসেন গৌছ, আব্দুল বাছির, মোহাম্মদ জাকারিয়া, জেনিফার সারোয়ার লাক্সমী, সালেহ আহমদ, কবির আহমদ, আব্দুল বাছিত, মোহাম্মদ সুলতান আহমদ, মুফিজুর রহমান চৌধুরী একলিল, রওশন জাহান, শাহিন আহমদ, সলিসিটর এম এ শাফি, আলম খান প্রমুখ।
এছাড়াও অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন মকলু মিয়া, আকলু মিয়া, রায়হান উদ্দিন, নুরুল ইসলাম, জামিল আহমদ, জুবায়ের সিদ্দিকী, আব্দুস সামাদ, মুহিবুর রহমান মুহিব, রিনা দাস, শাহজান সিরাজ দারা, আনোয়ার খান, জ্যোতি জামান, আমির খছরু, মাসুদ আহমদ, আকরাম চৌধুরী, আজাদ আলী, আবুল হোসেন, কয়েস আহমদ রুহেল, শাহজাহান সিদ্দিক, আলম চৌধুরী, দেলওয়ার খান, কবির আহমদ, রাজিউর রহমান, দেলোয়ার হোসেন, কিশওয়ার এনাম লিটন, সুহেল আহমদ, শাখাওয়াত হোসেন ফরাজি, আবিদ হোসেন তানু, আলী হোসেন, রুহুল আমিন, নাসরিন শাহজাহান, দিলারা বেগম, পারভীন আক্তার চৌধুরী, আয়েশা সানিলা, রেহানা কামাল, সুফিয়া খাতুন, রুহেলা হোসেন, শিরিন সুলতানা, মুন কোরেশী, ইসরাত জাহান কলি, সায়মা মোনাম, রুমানা এনাম আলিশা বেগম, রুজি বেগম, প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে সহযোগিতা করেন তরুছায়া ওমেনস অর্গানাইজেশনের চেয়ারম্যান ও উপস্থাপক শেখ রওশন আরা নীপা, বিউটিফুল লেডিস গ্রুপের মিছবা আহমদ, ইষ্টান কানেকশন এর তাহিরা জিনিয়া প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে পাঁচ শতাধিক সুধিজন ও নারী-পুরুষ দর্শনার্থী উপস্থিতিতে ব্রিটেনের সুনামখ্যাত শিল্পীদের সমন্বয়ে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
সমাপনী বক্তব্যে সোশ্যাল ট্রাস্টের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আব্দুল বাছিত বলেন, এ উৎসবে আমাদের লক্ষ্য পাশ্চাত্য সংস্কৃতি থেকে আমাদের প্রজন্মকে মুক্ত করে সবার মাঝে বাঙালি ঐতিহ্যকে ধারণ করার একটি প্রবণতা গড়ে তোলা। এ সংস্কৃতির ধারক, বাহক ও রক্ষার দায়িত্ব আমাদের সবার। এই রঙ বে-রঙ্গের পিঠা উৎসবে যাঁরা যোগ দিয়েছে তাদের সবাইকে জানাই প্রাণঢালা অভিনন্দন। তিনি আগামী ৩ জুলাই গোলাপগঞ্জ উৎসবে সবাইকে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ করেন।