সুইডেন-ফিনল্যান্ডে হামলা হলে যুক্তরাজ্য সহায়তা করবে: জনসন

Published: 11 May 2022, 4:26 PM

পোস্ট ডেস্ক :

Britain’s Prime Minister and Conservative leader Boris Johnson speaks during a press conference about Brexit and the general election in London on November 29, 2019. – Britain will go to the polls on December 12, 2019 to vote in a pre-Christmas general election. (Photo by Ben STANSALL / AFP)

একদিনের সফরে বুধবার সুইডেনে যান ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

আর এ সফরে বরিস জনসন জানিয়েছেন, যদি ফিনল্যান্ড বা সুইডেনে কোনো হামলা হয় তাহলে তাদের সামরিক সহায়তা দেবে যুক্তরাজ্য।

বরিস জনসন সুইডেনের সঙ্গে একটি চুক্তি করেছেন। যেখানে দুই দেশ সামরিকসহ সবদিক দিয়ে একে অপরকে সহায়তা করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েছে।

সুইডেন ও ফিনল্যান্ড বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামরিক জোট ন্যাটোতে যোগ দেওয়ার পরিকল্পনা করছে।

আর এমন সময় ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ইঙ্গিত দিলেন, ন্যাটোতে যোগ দেওয়ার আগ পর্যন্ত যদি ফিনল্যান্ড-সুইডেনের ওপর কোনো হামলা হয় তাহলে তখন এগিয়ে যাবে যুক্তরাজ্য।

এ ব্যাপারে একটি বিবৃতিতে বরিস জনসন বলেছেন, সুইডেন ও ফিনল্যান্ডকে সহায়তা করতে আমরা অবিচল ও দ্ব্যর্থহীন। আর এমন ঘোষণা আমাদের মধ্যে চিরস্থায়ী সম্পর্কেরই বহিঃপ্রকাশ।

বিবৃতিতে বরসি জনসন আরও বলেছেন, ফিনল্যান্ড ও সুইডেনের
নিরাপত্তা বাহিনী যদি কোনো সমস্যায় পড়ে বা হামলার স্বীকার হয় তাহলে যুক্তরাজ্য তাদের সহায়তা করবে।

এদিকে রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা করার আগে ফিনল্যান্ড বা সুইডেনের দুই দেশের কোনোটি ন্যাটোতে যোগ দিতে চায়নি।

কিন্তু ইউক্রেনে হামলা করতে দেখে নিজেদের নিরাপত্তার বিষয়টি চিন্তা করে ন্যাটোতে যোগ দেওয়ার পরিকল্পনা করছে তারা।