সিলেটে ছাত্রলীগ-ছাত্রদল সংঘর্ষ, সাংবাদিকের উপর হামলা

Published: 23 May 2022, 3:23 PM

সিলেট অফিস :


সিলেট নগরীর চৌহাট্টা ও আলিয়া মাদরাসা ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগ এবং ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের মাঝে ধাওয়া পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। সোমবার (২৩ মে) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে চ্যানেল এস এর সিলেট প্রধান মঈন উদ্দিন মনজু হামলার শিকার হয়েছের। বর্তমানে তাকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হচ্ছে। খবর পেয়ে দ্রুত পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে।

বর্তমানে সিলেট নগরীর চৌহাট্টা ও আলিয়া মাদরাসায় পুলিশ মোতায়েন করে রাখা হয়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে ও ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সাইফ মাহমুদ জুয়েলের শাস্তির দাবিতে সোমবার বিকেল ৪টার দিকে সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগ মিছিল বের করে। নগরীর চৌহাট্টাস্থ কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার থেকে তারা মিছিলটি বের করে কোর্ট পয়েন্ট ঘুরে আবার চৌহাট্টায় ফিরে যায়। এসময় কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে জেলা ছাত্রদলের একটি মিছিলও আলিয়া মাদরাসার সামন থেকে বের হয়। মিছিল শেষে আলিয়া মাদরাসার গেটের সামনে অবস্থান করছিলেন ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। এসময় ছাত্রলীগ ও ছাত্রদল মুখোমুখি হলে দুপক্ষের মাঝে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এবং ধাওয়া পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটে। ছাত্রলীগের ধাওয়া খেয়ে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা আলিয়া মাদরাসার ভেতরে ঢুকে পড়েন। এসময় পথচারীদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

ধাওয়ার এক পর্যায়ে আলিয়া মাদরাসার ভেতরে একটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। এছাড়াও পেশাগত দায়িত্ব পালনরত ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন (ইমজা) সিলেটের সভাপতি চ্যানেল এস সিলেট ব্যুরো প্রধান মইন উদ্দিন মঞ্জুর উপর হামলা চালানো হয়।

সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নাঈম আহমদ সিলেটভিউ-কে বলেন, আমাদের মিছিল শেষে চৌহাট্টায় নেতাকর্মীরা দাঁড়িয়েছিলেন। এসময় ছাত্রদল মিছিল বের করার চেষ্টা করলে তাদের ধাওয়া দেওয়া হয়।

সিলেট মহানগর ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বি আহসান বলেন, বিকেল ৪টার দিকে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে জেলা ছাত্রদল মিছিল বের করে। মিছিল শেষে আলিয়া মাদারাসার গেটের সামনে ফুটপাতে দাঁড়ানো অবস্থায় ছিলেন তারা। তখন পেছন দিক থেকে ছাত্রলীগের কায়েকজন নেতাকর্মী লাঠি নিয়ে হামলা চালায় এবং এক সাংবাদিককে মারধর করে।

তবে মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নাঈম আহমদ বলেছেন- ছাত্রদলের নেতাকর্মীরাই সাংবাদিকের উপর হামলা করেছেন।

এদিকে, ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার সময় পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন (ইমজা) সিলেটের সভাপতি চ্যানেল এস সিলেটের প্রধান প্রতিবেদক মইন উদ্দিন মঞ্জুর উপর কয়েকজন যুবক অতর্কিত হামলা চালান। এতে তিনি গুরুতর আহত হয়েছেন। হামলাকারীরা সাংবাদিক মঞ্জুর হাতের মোবাইল ফোন ভেঙে গুড়িয়ে দেয়।

পরে অন্য সাংবাদিকরা তাঁকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। মইন উদ্দিন মঞ্জু বাম হাতে বেশ আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছেন। হাতের এক্স-রে পরীক্ষা করা হয়েছে।

সিলেট কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আলী মাহমুদ বলেন, উত্তেজনার খবর পেয়ে দ্রুত আমাদের টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি শান্ত করে।

তিনি বলেন, ছাত্রলীগ অভিযোগ করেছে- ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা তাদের উপর ঢিল ছুঁড়েছে। তবে আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে ছাত্রদলের কাউকে পাইনি। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করে রাখা হয়েছে। যে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঠেকাতে প্রস্তুত রয়েছে পুলিশ।