ওসমানীনগরে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুতের দাবিতে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ

Published: 18 July 2022, 9:25 AM

সিলেট অফিস :

সিলেটের ওসমানীনগরে পল্লী বিদ্যুতের ডিজিএম মো. মুজিবুর রহমান চৌধুরীর অপসারণ ও নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুতের দাবিতে প্রায় দুই ঘণ্টা ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে বিক্ষুব্ধ বিদ্যুৎ গ্রাহকরা। রোববার রাত ৯টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত উপজেলার তাজপুর ইউনিয়নের খাশিকাপন পল্লী বিদ্যুতের সাবস্টেশন সংলগ্ন সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে পল্লী বিদ্যুতের গ্রাহকরা। গত দুই ঘন্টা অব্যাহত মহাসড়ক অবরোধের কারণে মহাসড়কের দুই দিকে প্রায় ১০ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে দূরপাল্লার কয়েক হাজার যানবাহন আটকা পরে। রোগীবাহী এ্যাম্বুলেন্স সহ নানা বয়সের হাজার হাজার যাত্রী সাধারণ চরম দুর্ভোগে পড়েন। এ সময় বিক্ষুব্ধ গ্রাহকরা ডিজিএমর বিরুদ্ধে নানা ধরনের সেøাগান দিয়ে ডিজিএমের অপসারণ এবং নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুতের দাবি জানান। এক পর্যায়ে ওসমানীনগর থানা পুলিশ এবং স্থানীয় সরকার দলীয় নেতৃবৃন্দরা অবরোধস্থলে গিয়ে অবরোধকারীদের সাথে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে রাত সোয়া ১১টার দিকে অবরোধ তুলে নেয়া হয়।

ওসমানীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনা মিয়া বলেন, বিদ্যুতের জন্য মহাসড়ক অবরোধ করায় দুদিকে হাজার যানবাহন আটকা পড়ে। রোগীবাহী এ্যাম্বুলেন্স সহ নানা বয়সের মানুষ দুর্ভোগে পড়েন। অবরোধকারীদের অনুরোধ করায় তারা শেষ পর্যন্ত অবরোধ তুলে দেন। আমরা ডিজিএমের সাথে বসে বিষয়টি নিয়ে সুরাহার ব্যবস্থা করব।

খাশিকাপন পল্লী বিদ্যুতের জোনাল অফিসের ডিজিএম মো. মুজিবুর রহমান চৌধুরী বলেন, গত শনিবার রাতে আমাদের এখানে সমস্যা ছিল না।

বিশ্বনাথের মেইন লাইনের দুটি তার ছিঁড়ে যাওয়ায় আমাদের ওখানে বিদ্যুৎ ছিল না। আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা করছি যাতে নিরবচ্ছন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ দেয়ার। ওসমানীনগর থানার ওসি এসএম মাঈন উদ্দিন বলেন, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দসহ সকলের প্রচেষ্টায় অবরোধ তুলে মহাসড়কে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক করা হয়।