দেশের অর্থনীতি আজ কঠিন সংকটে: মির্জা ফখরুল

Published: 23 July 2022, 7:56 AM

বিশেষ সংবাদদাতা :


বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দেশের অর্থনীতি আজ কঠিন সংকটে। করোনাকালে ভঙ্গুর অর্থনীতিকে কার্যকর রাখতে আমরা বেশ কিছু প্রস্তাবনা দিয়েছি। যা সরকার কর্ণপাত করেনি। ফলে এখন অর্থনীতির ভয়াবহতা ফুটে উঠছে।

শুক্রবার রাতে রাজধানীর গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
বিএনপির মিডিয়া সেল এই মতবিনিময় অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

শুধু বিএনপি নয়, পুরো জাতিই আজ এক কঠিন সময় অতিক্রম করছে উল্লেখ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আজকে এই ফ্যাসিস্ট সরকার সব গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে ধ্বংস করে জোর করে ক্ষমতায় আছে। বিদুৎ উৎপাদনের নামে, কুইক রেন্টালের নামে ভয়াবহ দুর্নীতি চলছে, যা জনগণের ওপর চাপ সৃষ্টি করবে। আজকে জ্বালানি তেল উত্তোলনের কোনো ব্যবস্থাও নেই।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড.খন্দকার মোশাররফ হোসেন, নজরুল ইসলাম খান, সেলিমা রহমান, বিএনপির মিডিয়া সেলের আহ্বায়ক জহির উদ্দিন স্বপন, সদস্য সচিব শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, সদস্য শাম্মী আক্তার, ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা, কাদের গণি চৌধুরী, ব্যারিস্টার মীর মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন, আতিকুর রহমান রুমন ও শায়রুল কবির খান।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন-বিএনপির সহদপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু, বিএনপি চেয়ারপারসনের একান্ত সচিব এ বি এম আব্দুস সাত্তার, চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার প্রমুখ।

মির্জা ফখরুল আরো বলেন, মেগা প্রজেক্ট দিয়ে জনগণের ভাগ্যের কোনো পরিবর্তন হচ্ছে না। আজকে দেশে দারিদ্র্যের হার বেড়েছে। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, অর্থনীতিসহ সবকিছু ধ্বংসের দিকে যাত্রা করেছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, এই অবৈধ সরকারের লক্ষ্য একদলীয় শাসনব্যবস্থা পাকাপোক্ত করতে ২০১৮ সালের মতো আগামীতে আরেকটি নির্বাচন করা। কিন্তু আমাদের কথা পরিষ্কার, সরকারকে তাদের ব্যর্থতা ও অপকর্মের দায় নিয়ে পদত্যাগ করতে হবে। নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে। নির্বাচন কমিশন গঠন ও সেই সরকারের অধীনে সংসদ গঠন করতে হবে।