ডেইলি মেইলের প্রতিবেদন
‘নিউক্লিয়ার ফুটবল’ সঙ্গে নিয়ে যাবেন ট্রাম্প, উদ্বেগ

Published: 20 January 2021, 8:16 AM

পোস্ট ডেস্ক :  বাংলাদেশ সময় আজ সন্ধ্যা ৭টায় হোয়াইট হাউজ ছাড়তে পারেন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প।

হোয়াইট হাউজ ছেড়ে তিনি উঠবেন ফ্লোরিডার মার-এ-লাগো’তে। সাধারণত, নতুন প্রেসিডেন্ট শপথ নেয়ার পর সদ্যবিদায়ী প্রেসিডেন্ট বিদায় নিয়ে থাকেন। বাংলাদেশের স্থানীয় সময় আজ রাত ১১টার দিকে নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত জো বাইডেনের শপথ নেয়ার কথা। কিন্তু তার প্রায় ৪ ঘন্টা আগে ট্রাম্পের হোয়াইট হাউজ ছেড়ে যাওয়া নিয়ে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। কারণ, তিনি সঙ্গে নিয়ে যাচ্ছেন পারমাণবিক কোড। এর নাম দেয়া হয়েছে ‘নিউক্লিয়ার ফুটবল’। তিনি এই ফুটবল সঙ্গে নিয়ে যাচ্ছেন ফ্লোরিডায়।
সাধারণত এই ফুটবলটি বিদায়ী প্রেসিডেন্ট নতুন প্রেসিডেন্টের কাছে দুপুরে হস্তান্তর করেন। এ সময়ে সদ্যবিদায়ী প্রেসিডেন্টের নিউক্লিয়ার কোড নিষ্ক্রিয় করে দেয়া হয়। নতুন প্রেসিডেন্টের হাতে যে নিউক্লিয়ার ফুটবল দেয়া হয়, তার কোড সক্রিয় করে দেয়া হয়। এটি বিশেষ একটি ফুটবল। এর মধ্যে প্রেসিডেন্ট যেসব নির্দেশ ব্যবহার করে থাকেন তার সরঞ্জাম এবং কোথাও পারমাণবিক হামলা চালানোর সরঞ্জাম সংরক্ষিত থাকে। ফলে যতক্ষণ এই নিউক্লিয়ার ফুটবলের কোড নিষ্ক্রিয় করা না হচ্ছে, তা নিয়ে ট্রাম্প হোয়াইট হাউজ থেকে বেরিয়ে গেলে কি ঘটতে পারে তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন অনেকে। এ ছাড়া তিনি নতুন নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের উদ্দেশে কোনো চিঠি রেখে যাবেন কিনা হোয়াইট হাউজে, তাও স্পষ্ট নয়। ১৮৬৯ সালের পর তিনিই হবেন নতুন প্রেসিডেন্টের শপথ অনুষ্ঠানে অনুপস্থিত সদ্যবিদায়ী প্রেসিডেন্ট।

সিএনএনের সঙ্গে এ নিয়ে কথা বলেছেন বুলেটিন অব দ্য এটমিক সায়েন্টিস্টের অনাবাসিক সিনিয়র ফেলো স্টিফেন শওয়ার্টজ। তিনি বলেছেন, পারমাণবিক ফুটবল ইস্যুতে আরো বেশি কাজ করা উচিত ছিল এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট নেতাকর্মীদের। তিনি আরো বলেছেন, একই রকম কমপক্ষে তিন থেকে চারটি ফুটবল আছে। এর একটি থাকে প্রেসিডেন্টের কাছে। একটি থাকে ভাইস প্রেসিডেন্টের কাছে। শপথ অনুষ্ঠানে এবং স্টেট অব দ্য ইউনিয়ন ভাষণের সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের কাছে। ২০ শে জানুয়ারি একটি ফুটবল চলে যাবে শহরের বাইরে। এর ফলে ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের ব্রিফিকেসে শুধু একটি ফুটবল থাকবে। ফলে বাইডেনের জন্য অন্য একটি ব্যাকআপ রাখতে হবে।
এ ছাড়া প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সব সময় বহন করেন একটি প্লাস্টিক কার্ড। এটি বিস্কুট বলে পরিচিত। এতে এমনসব কোড আছে, তা দিয়ে প্রেসিডেন্টকে শনাক্ত করা যায় এবং প্রেসিডেন্টই পারমাণবিক অস্ত্র সক্রিয় করার একমাত্র অনুমোদিত ব্যক্তি। জো বাইডেন শপথ না নেয়া পর্যন্ত পারমাণবিক হামলার কর্তৃত্ব যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধান ট্রাম্পকে দিয়েছে। এদিন স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় (বাংলাদেশ সময় রাত ১১টা) ডিএকটিভেটেড বা নিষ্ক্রিয় করে ফেলার কথা। সঙ্গে সঙ্গে বাইডেনের বিস্কুট সক্রিয় হয়ে যাবে। ট্রাম্পের নিউক্লিয়ার ফুটবলসহ তার ব্রিফকেসের ওজন হবে ৪৫ পাউন্ড। এটি বহন করবেন তার এক সহযোগী। দুপুরে যখন ওই নিউক্লিয়ার ফুটবল নিষ্ক্রিয় হয়ে যাবে তখন তিনি সহযোগীর মাধ্যমে ফ্লোরিডা থেকে এটি পাঠিয়ে দেবেন ওয়াশিংটন ডিসি’তে।

আগেই বলা হয়েছে, ১৮৬৯ সালের পর প্রথম প্রেসিডেন্ট হিসেবে নতুন প্রেসিডেন্টের শপথ অনুষ্ঠানে থাকবেন না ট্রাম্প। এই অনুষ্ঠানে বিদায়ী প্রেসিডেন্টের উপস্থিত থাকা মার্কিন সংবিধান অনুযায়ী বাধ্যতামূলক নয়। এর আগে শপথ অনুষ্ঠান বর্জন করেছেন সাবেক ও দ্বিতীয় প্রেসিডেন্ট জন এডামস, ষষ্ঠ প্রেসিডেন্ট জন কুইনসি এডামস এবং ১৭তম প্রেসিডেন্ট অ্যানড্রু জনসন। এর পর ট্রাম্প যোগ দিচ্ছেন তাদের দলে। তিনি হবেন এমন চতুর্থ প্রেসিডেন্ট। এখানে উল্লেখ্য, এই চার প্রেসিডেন্টই এক মেয়াদের ক্ষমতায় ছিলেন। নতুন প্রেসিডেন্টের শপথ অনুষ্ঠানে বিদায়ী প্রেসিডেন্টের উপস্থিতিকে দেখা হয় যুক্তরাষ্ট্রের গণতন্ত্রের স্থিতিশীলতা হিসেবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •