তালেবানের ক্ষমতা দখলের ব্যাপারে সবার ধারণাই ভুল ছিল: ব্রিটিশ সেনাপ্রধান

Published: 12 September 2021, 8:00 AM

পোস্ট ডেস্ক :


তালেবান কত দ্রুত আফগানিস্তান দখল করবে এ বিষয়ে ‘সবার ধারণা ভুল ছিল’। সম্প্রতি এমনটা বলেছেন আফগানিস্তানে ব্রিটেনের সশস্ত্র বাহিনীর প্রধান জেনারেল স্যার নিক কার্টার।

বিবিসি’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, তাদের ক্ষমতা দখলের গতি আমাদের হতবাক করেছিল। আমার মনে হয় না, কেউ বুঝতে পেরেছিল তালেবানরা কী করতে চলেছে।

তালেবানের পরিকল্পনা সম্পর্কে ব্রিটিশ সামরিক গোয়েন্দাদের কাছে ভুল তথ্য ছিল কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে ব্রিটিশ সেনাপ্রধান বলেন, সরকার নানান ধরণের সূত্র থেকে গোয়েন্দা তথ্য পেয়েছে। এটা আসলে একেবারে সামরিক গোয়েন্দাগিরির বিষয় না।

আফগানিস্তান থেকে যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেনে সেনা প্রত্যাহার করেছে প্রায় দুই সপ্তাহ হলো। ২০ বছরের সামরিক অভিযানের সমাপ্তি ঘটিয়ে দক্ষিণ এশীয় দেশটি থেকে বিদায় নিয়েছে তারা। তাদের প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছেন অনেকেই। বিশেষ করে, পশ্চিমা সেনা প্রত্যাহারের সঙ্গে সঙ্গেই যে তড়িৎ গতিতে তালেবান দেশটির নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে তা নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন।
ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাব গত সপ্তাহে পার্লামেন্টে বলেন, গোয়েন্দা সংস্থার ধারণা ছিল আগস্টে আফগানিস্তানে নিরাপত্তা ব্যবস্থার অবনতি হবে ধীরে। তবে চলতি বছরের মধ্যে আফগান সরকারের পতন হওয়ার সম্ভাবনা ছিল ক্ষীণ।

কিন্তু সে মূল্যায়নকে ভুল প্রমাণ করে, আগস্টের মাঝামাঝি সময়ের মধ্যেই আফগানিস্তান দখল করে নেয় তালেবান।

গত রোববার বিবিসি’র অ্যান্ড্রিও মার শো’তে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ বিষয়ে কথা বলেছেন নিক কার্টার। কিভাবে গোয়েন্দা সংস্থার ধারণা ভুল প্রমাণিত হলো সে প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমার মনে হয় সবাই সবার ধারণাই এ ব্যাপারে ভুল ছিল। এমনকি খোদ তালেবানরাও ভাবেনি যে এত দ্রুত পরিস্থিতি পাল্টে যাবে।
নিক বলেন, আমার মনে হয় না, কেউ টের পেয়েছিল যে আফগান সরকার কতটা ঠুনকো ছিল এবং সশস্ত্র বাহিনী পরিচালনার ক্ষেত্রে কতটা দুর্বল ছিল।

মঙ্গলবার আফগানিস্তানকে ‘ইসলামিক এমিরেট’ ঘোষণা দিয়ে তত্ত্বাবধায়ক সরকার গঠন করেছে তালেবান। সরকার প্রধান করা হয়েছে মোহাম্মদ হাসান আখুন্দ’কে। নতুন এ সরকার কিভাবে দেশ পরিচালনা করবে তা নিয়ে এখনো অনিশ্চয়তা রয়ে গেছে।

ব্রিটিশ সেনাপ্রধান বলেন, এত আগেভাগে তালেবান কিভাবে দেশ পরিচালনা করবে তা বলা কঠিন। তবে আগের চেয়ে অনেকটা সহনশীল হতে পারে নতুন তালেবান সরকার।

তিনি বলেন, বিদ্যমান পরিস্থিতি বিবেচনায় অবস্থা খুব একটা ভালো দেখাচ্ছে না। কিন্তু দেখা যাক কী হয়। হয়তো পরিস্থিতি পাল্টাবে। আমি মনে করি, তারা এতটা বোকা নয় যে, আফগানরা কতটা পাল্টেছে তা বুঝবে না। আর তারা নিজেরাও একটু ভিন্নভাবে দেশ চালাতে চায়।

রোববার এক নারী পুলিশকর্মীকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তালেবানের বিরুদ্ধে। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম অনুসারে, সম্প্রতি নারীদের বিরুদ্ধে নির্যাতন বাড়িয়েছে দলটি। নিক বলেন, এখন তালেবানকে ভিন্নভাবে দেশ পরিচালনায় উদ্বুদ্ধ করার দায়িত্ব আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের হাতে।

তিনি বলেন, আধুনিক একটি সমাজ কার্যকরভাবে চালাতে তালেবানের কিছুটা সাহায্য লাগবে। তারা ঠিকঠাক আচরণ করলে হয়তো সে সহায়তা পেয়েও যাবে।
এদিকে, আফগানিস্তানের গৃহযুদ্ধ শুরু হতে পারে বলে গত শনিবার সতর্ক করেছেন মার্কিন সেনাপ্রধান জেনারেল মার্ক মিলি। তিনি আরো বলেন, গৃহযুদ্ধের সুযোগে দেশটিতে নতুন সন্ত্রাসী গোষ্ঠী মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারে।

ফক্স নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আফগানিস্তানে আগামী ১২, ২৪, ৩৬ মাসের মধ্যে সন্ত্রাসবাদের পুনরুত্থান ঘটার মতো অনুকূল পরিবেশ বিদ্যমান রয়েছে।

তবে নিক কার্টার বলেন, আফগানিস্তানে সন্ত্রাসবাদ পুনরুত্থান হবে কিনা তা নির্ভর করবে সেখানে কার্যকর কোনো সরকার গঠনের উপর।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •