যুক্তরাষ্ট্রকে ‘সরাসরি’ হুমকি চীনের

Published: 1 August 2022, 12:14 PM

পোস্ট ডেস্ক :


তাইওয়ান ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রকে দফায় দফায় হুঁশিয়ারি ও হুমকি দিয়ে আসছে চীন। মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফর কেন্দ্র করেই ওয়াশিংটনকে সতর্কবার্তা দিচ্ছে বেইজিং। এসব সতর্কবার্তা ও হুঁশিয়ারির মধ্যেই এশিয়া সফর শুরু করেছেন ন্যান্সি পেলোসি। তবে তার সফরসূচিতে তাইওয়ানের নাম না থাকলেও চীন বিষয়টি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে সরাসরিই হুমকি দিয়েছে। সোমবার বেইজিংয়ের তরফ থেকে জানানো হয়েছে ন্যান্সি পেলোসি যদি তাইওয়ান সফর করে তাহলে ‘চীনের‘সেনাবাহিনী হাত গুটিয়ে বসে থাকবে না’।

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এই সর্বশেষ এই হুমকি দেওয়া হয় বলে সোমবার বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

ন্যান্সি পেলোসির সম্ভব্য তাইওয়ান সফর ‘মারাত্মক রাজনৈতিক প্রভাবের দিকে নিয়ে যাবে’ বলে ব্রিফিংয়ে হুঁশিয়ার করেন চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান।

এদিকে, সোমবার এশিয়া সফরে নিজের প্রথম গন্তব্য সিঙ্গাপুরে এসে পৌঁছান তিনি। সিঙ্গাপুরে দুইদিন থাকার পর পেলোসি যথাক্রমে যাবেন মালয়েশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া এবং জাপানে। তবে তাইওয়ান সফরের বিষয়টি উল্লেখ করেনি ন্যান্সি পেলোসির কার্যালয়।

গত ২৫ বছরের মধ্যে কোনো উচ্চ পর্যায়ের কোনো মার্কিন কর্মকর্তা তাইওয়ান সফর করেনি। চীনের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক থাকলেও তাইওয়ানের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই ওয়াশিংটনের।

ন্যান্সি পেলোসি তাইওয়ান সফর করলে ওয়াশিংটনকেই ‘পরিণতি বহন করতে হবে’ বলে এর আগে সরাসরি হুঁশিয়ারি দিয়েছিল চীন। এরপর এক ফোনালাপে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং তাইওয়ান ইস্যুতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে ‘আগুন নিয়ে খেলা’র বিরুদ্ধে হুশিয়ার করে বলেন, যারা আগুন নিয়ে খেলে তারা কেবলই পুড়ে যাবে। আশা করি যুক্তরাষ্ট্র সেটি পরিষ্কারভাবেই বুঝতে পেরেছে।

এর আগেও পেলোসির এই সফরকে কেন্দ্রকে যুক্তরাষ্ট্রকে কড়া ভাষায় চিঠি দেওয়ার কথা স্বীকার করেছিলেন চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান।

তাইওয়ান, মানবাধিকার এবং প্রযুক্তি খাতের প্রতিযোগিতাসহ বিভিন্ন ইস্যুতে বাইডেনের আমলে দুই বৈশ্বিক পরাশক্তির মধ্যে সম্পর্কের অবনতি অব্যাহত রয়েছে।