সেই অভিযোগ নিয়ে যা বললেন ন্যান্সি পেলোসি

Published: 5 August 2022, 7:38 AM

পোস্ট ডেস্ক :


মার্কিন হাউস স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফর কেন্দ্র করে সামরিক মহড়া শুরু করেছে চীন। আলোচিত এই সফরে তাইওয়ানকে সাহায্য করার চেয়েও ন্যান্সি পেলোসির নিজের স্বার্থ প্রাধান্য পেয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে সেই অভিযোগ নাকচ করে দিয়েছেন তিনি। বিবিসি শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছে।

শুক্রবার টোকিওতে সংবাদ সম্মেলনে ন্যান্সি পেলোসি সেই অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, এটি একটি হাস্যকর বিতর্ক। এতে আমার কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই। এখানে তাইওয়ানের ব্যাপারে বলা হচ্ছে।

এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, তারা (চীন) তাইওয়ানকে অন্য জায়গায় যাওয়া বা অংশগ্রহণ করা থেকে বিরত রাখার চেষ্টা করতে পারে, কিন্তু তারা আমাদের সেখানে ভ্রমণে বাধা দিয়ে তাইওয়ানকে বিচ্ছিন্ন করতে পারে না।

এ সময় তিনি বলেন, ‘তাইওয়ান বিশ্বের স্বাধীন দেশগুলোর মধ্যে একটি’ এবং ‘দেশটির একটি সমৃদ্ধ অর্থনীতির সঙ্গে শক্তিশালী গণতন্ত্র’ও রয়েছে।

প্রসঙ্গত, মার্কিন হাউস স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফর কেন্দ্র করে স্বশাসিত দ্বীপটিকে ঘিরে সামরিক মহড়া চালাচ্ছে চীন। ওই মহড়ার সময় বেইজিং তাইওয়ানের জলসীমায় ব্যালাস্টিক মিসাইল ছুড়েছে বলে অভিযোগ করেছে তাইপে প্রশাসন।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার সকাল থেকে যুদ্ধের প্রস্তুতি হিসেবে ওই সামরিক মহড়া শুরু করে চীন। চীনের এই মহড়ার কারণে তাইওয়ানে সব ধরনের বিমান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

চীনের ওই সামরিক মহড়া স্থানীয় সময় শনিবার দুপুরে শেষ হবে। সামরিক এ মহড়া তাইওয়ানের আশপাশের আকাশ ও জলসীমায় অব্যাহত থাকবে।

এদিকে তাইওয়ান কর্তৃপক্ষ বলছে, চীনের এ মহড়া জাতিসংঘের নিয়মবহির্ভূত। তাইওয়ানের আঞ্চলিক আকাশসীমায় মহড়া নিয়ে সরাসরি আকাশ ও সমুদ্রসীমায় প্রবেশ স্বাধীনতার জন্য হুমকি।

তাইওয়ানের ক্ষমতাসীন দল ডেমোক্রেটিক প্রোগ্রেসিভ পার্টি (ডিপিপি) বলেছে, চীন আন্তর্জাতিক জলপথের সবচেয়ে বড় ব্যস্ত অংশে মহড়া পরিচালনা করছে, যা দায়িত্বহীনতা, অবৈধ আচরণ।

অন্যদিকে তাইওয়ানের মন্ত্রিপরিষদের মুখপাত্র এ মহড়ার তীব্র নিন্দা প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, আমাদের প্রতিরক্ষা, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও প্রেসিডেন্টের ওয়েবসাইটে হামলা করেছে হ্যাকাররা।