সুনামগঞ্জ বিজিবির ব্যতিক্রমী উদ্যোগ 

Published: 2 October 2020, 8:56 PM

তাহিরপুর সংবাদদাতা : চলমান করোনা পরিস্থিতি ও সাম্প্রতিক কয়েক দফা বন্যা পরবর্তী পরিস্থিতিতে “ত্রান চাই না, সহযোগিতা চাই” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে সুনামগঞ্জ ২৮ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের ৯০ কিলোমিটার বিজিবি ক্যাম্প দায়িত্বপূর্ণ এলাকার সীমান্তবর্তী ২৯টি দুস্থ, অসহায়, নিম্নআয়ের ও বন্যায় বিপর্যস্ত, স্বামী পরিত্যাক্তা, প্রতিবন্ধি, হতদরিদ্র পরিবার সমূকে আত্মনির্ভরশীল করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে ভ্যানগাড়ী, নৌকা, ক্ষুদ্র টি-স্টল, ও দোকান পরিচালনার জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। “আলোকিত সীমান্ত” প্রকল্পের আওতায় বিজিবি কোম্পানী কমান্ডার ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে যাচাই বাচাই করে এসব সামগ্রী ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বিতরণ করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সুনামগঞ্জ ২৮ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে.কর্ণেল মাকসুদুল আলম, তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুনা সিন্দু চৌধুরী বাবুল, তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী (ভারপ্রাপ্ত) কর্মকর্তা এসিল্যান্ড সৈয়দ আমজদ হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান রিয়াজ উদ্দিন খন্দকার লিটন, তাহিরপুর থানার ওসি মো. আব্দুল লতিফুর তরফদার, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আবুল হোসেন খান, শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান খসরুল আলম, সাধারণ সম্পাদক অমল কান্তি কর, বাদাঘাট ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন, ট্যাকেরঘাট কোম্পানী কমান্ডার আমিনুল ইসলাম, বালিয়াঘাট ক্যাম্প কমান্ডার জাকির হোসেন, সাংবাদিক এম.এ রাজ্জাক প্রমুখ।

এ প্রসঙ্গে সুনামগঞ্জ- ২৮ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে.কর্ণেল মাকসুদুল আলম বলেন, “আলোকিত সীমান্ত” প্রকল্পের আওতায় সীমান্ত এলাকায় বসবাসরত জিরো পয়েন্টের কাছে যেখানে স্থানীয় প্রশাসন ও বেসরকারি উন্নয়ন ও সহযোগিতা মূলক সংস্থার ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছেনি সেসব এলাকায় বিজিবি অসহায় ও হতদরিদ্রদের খুঁজখবর নিয়ে, যাচাই বাছাই সাপেক্ষে তাদের মধ্যে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, সীমান্তবর্তী এসকল অসহায়, দুস্থ ও হতদরিদ্র পরিবারকে আর্থিক সহযোগিতার মাধ্যমে আত্মনির্ভরশীল করার লক্ষ্যে সুনামাগঞ্জ -২৮ ব্যাটালিয়নের প্রচেষ্টা ও সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •