সিরিয়ার নারীরা যে কারণে দেরিতে বিয়ে করছেন

Published: 6 October 2020, 8:18 AM

পোস্ট ডেস্ক : ‍ যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ায় নারীরা ব্যাপক সংকটের মধ্য দিয়ে দিন পার করছেন। সে দেশের বহু পুরুষ পালিয়ে গেছেন, আবার অনেকে সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়েছেন।
পুরুষের অবর্তমানে নারীদেরকেই ধরতে হচ্ছে সংসারের হাল। এমনকি সে দেশে নারীর সংখ্যা তুলনামূলকভাবে বেড়ে গেছে বলেও গণমাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে।
পরিবারের অর্থনৈতিক সংকটের কারণে অনেক দেরিতে নারীরা বিয়ে করছেন বলে জানা গেছে। পরিবারকে সহায়তা করার জন্য অনেক নারীই ৩০ বছর পার হওয়ার আগে বিয়ে করছেন না।
সে ক্ষেত্রে অনলাইনে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ছেন অনেকেই। ভার্চুয়াল মাধ্যমে প্রেমের সম্পর্কের পর অনেকেরই বিয়ে হচ্ছে।
তবে বেশির ভাগের ক্ষেত্রে ৩০ বছরের আগে বিয়ের কথা চিন্তা করা সম্ভব হচ্ছে না সে দেশের বহু নারীর। সে ক্ষেত্রে তাঁরা পুরুষদের সঙ্গে নানা রকমের চাকরি করছেন। অনেকে দোকানে বিক্রয়কর্মী হিসেবে কাজ করছেন।
কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরার প্রতিবেদক কাতিয়া রৌপেজ এ ব্যাপারে একটি প্রতিবেদন তৈরি করেন। সেখানে এ ধরনের বিষয় উঠে আসে। ওই প্রতিবেদনে দেখা যায়, তৈরি পোশাক বিক্রির দোকানে পুরুষ কর্মীর সঙ্গে একই কাজ করছেন এক নারী। ৩০ পার হয়ে গেলেও বিয়ের ব্যাপারে ভাবতেই পারছেন না এই নারীরা।