ওল্ডহ্যামের কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব আলহাজ্ব ময়না মিয়ার ইন্তেকাল

Published: 6 October 2020, 7:32 PM

প্রবাসে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক বিশিষ্ট কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব আলহাজ্ব ময়না মিয়া আর নেই ( ইন্না…..লিল্লাহি… রাজিউন)। গেল ৩রা অক্টোবর স্থানীয় সময় ভোর পাঁচ ঘটিকায় বার্ধক্য জনিত কারনে তিনি তার ওল্ডহ্যামের বাসভবনে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯০ বছর। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই পুত্র, চার কন্যা, নাতি-নাতনি সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

৪ অক্টোবর রোববার বাদ জোহর ওল্ডহ্যামের মদিনা মস্ক এন্ড ইসলামী সেন্টারে নামাজে জানাজা শেষে তাঁকে গ্রেটার মানচেষ্টারের চ্যাডারটন সিমিট্রিতে সমাহিত করা হয়। মরহুমের দেশের বাড়ী বৃহত্তর সিলেটের হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার চার নম্বার দীগলবাক ইউনিয়নের কারখানা গ্রামে। তিনি জীবদ্দশায় একাধিক সামাজিক সাংস্কৃতিক ও জনহিতকর কাজের সাথে জড়িত ছিলেন।

এলাকার শিক্ষার উন্নয়ন সহ আর্থমানবতার সেবায় নীরবে নিভৃতে কাজ করে গেছেন। এলাকার এই প্রবীন মুরব্বীর মৃত্যুতে বৃটেনে বসবাসরত নবীগঞ্জ বাসীর পক্ষ থেকে শোক প্রকাশ করেছেন যুক্তরাজ্যস্থ হবিগঞ্জ এ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি একাউনটেন্ট মাহমুদ এ. রউফ, হবিগঞ্জ এ্যাসোসিয়েশনের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট সাংবাদিক গবেষক মতিয়ার চৌধুরী, সেক্রেটারী সাংবাদিক গোলাম কিবরিয়া, ইনাতগঞ্জ দীগলবাগ গণদাবী পরিষদের প্রেসিডেন্ট সাবেক ছাত্র নেতা দেলওয়ার হোসেন দিপু, যুক্তরাজ্যস্থ দীগলবাক ইউনিয়ন ডেভল্যাপমেন্ট এ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট সিরাজুল ইসলাম, সেক্রেটারী শেখ শামীম আহমদ, সাবেক সভাপতি ফজলুর রহমান, নবীগঞ্জ উন্নয়ন সংস্থার পক্ষে আহবায়ক শামীম চৌধুরী, ব্যরিস্টার মাহমুদুল হক, কমিউনিটি নেতা মাহতাব মিয়া প্রমুখ। শোক বার্তায় তারা মরহুমের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।

মরহুমের প্রথম পুত্র বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ ওল্ডহ্যামের কমিউনিটি নেতা অধ্যাপক আব্দুল হান্নান তার পিতার মাগফেরাতের জন্যে পরিবারের পক্ষ থেকে সকলের দোয়া চেয়েছেন।