ম্যানচেস্টার, লিভারপুল, নিউক্যাসলে পাব ও রেস্টুরেন্ট বন্ধের ঘোষণা

Published: 8 October 2020, 4:20 PM

পোস্ট ডেস্ক : ব্রিটেনের সর্বত্র করোনাভাইরাস উদ্বেগজনক হারে ছড়িয়ে পড়েছে। দ্বিতীয় ধাপে সংক্রমিত এই ভিাইরাসে বিপর্যস্থ পুরো ব্রিটেন। বড় ইতিমধ্যে সেন্ট্রাল স্কটল্যান্ডের বেশ কিছু এলাকায় শুক্রবার থেকে পাব ও রেস্টুরেন্ট বন্ধ রাখার নিদের্শ দেয়া হয়েছে। নিআু ক্যাসলে একটি বিশ্ব বি

দ্যালয়ের এক হাজার ছাত্র করেোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সংবাদ দিয়েছে আন্তর্জাতিক মিডিয়াগুলো।

এদিকে ইংল্যান্ডের পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ। বিশেষ করে নর্থ ইংল্যান্ডে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনের বাইরে চলে যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে সরকারের উপদেষ্টা এবং মন্ত্রীদের চাপে আগামী সোমবার থেকে ম্যানচেস্টা, লিভারপুল, নিউক্যাসলসহ বেশ কিছু এলাকার পাব, রেস্তোরা বন্ধ রাখার ঘোষনা দেয়া হবে। এব্যাপারে বিকেলে অথবা স্বল্প নোটিশে ঘোষণা আসতে পারে বলে বিবিসি নিশ্চিত করেছে।

তিন স্থরের নতুন বিধি নিষিধের মধ্যে পাব রেস্টুরেন্ট বন্ধের পাশাপাশি সারা রাত্রি বাড়ির বাইরে থাকা নিষিদ্ধ হচ্ছে, বাড়ীর বাইরের করো সাথে দেখা করা যাবে না বা অন্য বাড়ীর লোকজন নিজের বাড়ীতে আনা যাবে না ( হাউজহোল্ড মিক্সিং নিষিদ্ধ)। এছাড়া একেক এলাকায় একেক ধরনের বিধি নিষেধ আরোপ করা হতে পারে।

এদিকে গতকাল পার্লামেন্টে নিজ দলীয় এমপিদের পাশাপাশি বিরোধী নেতা স্যার কিয়ার স্টারমার এর প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়েছে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে। কিসের ভিত্তিতে রাত ১০টা পর পাব ও রেস্টুরেন্ট বন্ধ রাখা হচ্ছে এর বৈজ্ঞানিক বিশ্লেষন জন সম্মুখে প্রকাশের দাবী তুলেন।

পোস্ট ডেস্ক : ব্রিটেনের সর্বত্র করোনাভাইরাস উদ্বেগজনক হারে ছড়িয়ে পড়েছে। দ্বিতীয় ধাপে সংক্রমিত এই ভিাইরাসে বিপর্যস্থ পুরো ব্রিটেন। বড় ইতিমধ্যে সেন্ট্রাল স্কটল্যান্ডের বেশ কিছু এলাকায় শুক্রবার থেকে পাব ও রেস্টুরেন্ট বন্ধ রাখার নিদের্শ দেয়া হয়েছে। নিআু ক্যাসলে একটি বিশ্ব বিদ্যালয়ের এক হাজার ছাত্র করেোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সংবাদ দিয়েছে আন্তর্জাতিক মিডিয়াগুলো।

এদিকে ইংল্যান্ডের পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ। বিশেষ করে নর্থ ইংল্যান্ডে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনের বাইরে চলে যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে সরকারের উপদেষ্টা এবং মন্ত্রীদের চাপে আগামী সোমবার থেকে ম্যানচেস্টা, লিভারপুল, নিউক্যাসলসহ বেশ কিছু এলাকার পাব, রেস্তোরা বন্ধ রাখার ঘোষনা দেয়া হবে। এব্যাপারে বিকেলে অথবা স্বল্প নোটিশে ঘোষণা আসতে পারে বলে বিবিসি নিশ্চিত করেছে।

তিন স্থরের নতুন বিধি নিষিধের মধ্যে পাব রেস্টুরেন্ট বন্ধের পাশাপাশি সারা রাত্রি বাড়ির বাইরে থাকা নিষিদ্ধ হচ্ছে, বাড়ীর বাইরের করো সাথে দেখা করা যাবে না বা অন্য বাড়ীর লোকজন নিজের বাড়ীতে আনা যাবে না ( হাউজহোল্ড মিক্সিং নিষিদ্ধ)। এছাড়া একেক এলাকায় একেক ধরনের বিধি নিষেধ আরোপ করা হতে পারে।

এদিকে গতকাল পার্লামেন্টে নিজ দলীয় এমপিদের পাশাপাশি বিরোধী নেতা স্যার কিয়ার স্টারমার এর প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়েছে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে। কিসের ভিত্তিতে রাত ১০টা পর পাব ও রেস্টুরেন্ট বন্ধ রাখা হচ্ছে এর বৈজ্ঞানিক বিশ্লেষন জন সম্মুখে প্রকাশের দাবী তুলেন।