নভেম্বরেই ভ্যাকসিন মিলবে ব্রিটেনে

Published: 9 October 2020, 5:20 AM

পোস্ট ডেস্ক : আগামী মাসেই ব্রিটেনের  প্রধান শহরগুলোতে হাজার হাজার মানুষকে কোভিড নাইন্টিনের ভ্যাকসিন দেয়া শুরু হবে। সমপ্রতি ফাঁস হওয়া এক নথিতে জানা যায়, এরইমধ্যে এই লক্ষ্যে কাজ শুরু করেছে দেশটির সরকার।

এ জন্য প্রাথমিকভাবে পাঁচটি ভ্যাকসিনেশন সেন্টার স্থাপন করা হবে। এরইমধ্যে শত শত এনএইচএস কর্মীকে এসব সেন্টারে পাঠানোর পরিকল্পনাও ফাঁস হওয়া নথি থেকে জানা যায়। এ খবর দিয়েছে ডেইলি মেইল।
খবরে বলা হয়, বৃটিশ সরকারের পরিকল্পনা যত দ্রুত সম্ভব প্রতিদিন হাজার হাজার নাগরিককে করোনার ভ্যাকসিন প্রদান করা। এরমধ্যে যারা সব থেকে বেশি ঝুঁকিপূর্ণ তাদেরকে প্রথমদিকে ভ্যাকসিন দেয়া হবে। প্রথমদিকে লিডস ও লন্ডনের মতো বড় শহরগুলোতে ভ্যাকসিনেশন সেন্টার স্থাপন করা হবে।

এ ছাড়া দেশজুড়ে কাজ করবে ভ্রাম্যমাণ ভ্যাকসিনেশন ইউনিট। কোভিড নাইন্টিনের বিরুদ্ধে কার্যকরী ভ্যাকসিন আবিষ্কার করেছে বৃটেনের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়। এরই মধ্যে মিলিয়ন মিলিয়ন ভ্যাকসিন উৎপাদন করা হয়েছে। এই ভ্যাকসিনই দেয়া হবে বৃটিশদের।
সূত্রের বরাত দিয়ে দ্যা সান জানিয়েছে, আগামী এক মাসের মধ্যেই তৃতীয় ধাপের পরীক্ষার ফলাফল পাওয়া যাবে। এরপরই ভ্যাকসিন দেয়া কার্যক্রম চালু করা হবে। অর্থাৎ, পবিত্র বড়দিনের পূর্বেই এই ভ্যাকসিনেশন চালু হবে। এর আগে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রস আধানম নিশ্চিত করেন, এ বছরের মধ্যেই ভ্যাকসিন চলে আসছে।
এদিকে, বৃটেনের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, এনএইচএস কর্মী ও সামরিক বাহিনীর সমন্বয়ে ভ্যাকসিন কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে। নাগরিকরা প্রাপ্যতার ভিত্তিতে ভ্যাকসিন পাবেন। তবে তিনি জানাননি ঠিক কিসের ভিত্তিতে এই প্রাপ্যতা নির্ধারণ করা হবে।
এরইমধ্যে বৃটিশ সরকার ১০ কোটি ভ্যাকসিনের অর্ডার করেছে। গত এপ্রিল মাস থেকে এই ভ্যাকসিনের পরীক্ষা চলছে। এখন শুধু আনুষ্ঠানিকভাবে এটিকে অনুমোদন দেয়ার অপেক্ষা।