কঙ্গোর কারাগার থেকে ১৩০০ বন্দির পলায়ন

Published: 21 October 2020, 8:00 AM

পোস্ট ডেস্ক : কঙ্গো প্রজাতন্ত্রের পশ্চিমাঞ্চল বেনির একটি কারাগারে সশস্ত্র হামলার ঘটনায় ১ হাজার ৩০০ বন্দি পালিয়েছেন।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সকালে ওই হামলার ঘটনা ঘটে। হামলাকারীরা এ সময় বন্দিদের কারাগার থেকে ছাড়িয়ে নিয়ে গেছে। খবর আলজাজিরা, এএফপি ও রয়টার্সের।

সেখানকার স্থানীয় মেয়র মডেস্তে বাকওয়ানামাহা জানান, কাংবায়ির কেন্দ্রীয় কারাগার ও সেখানকার নিরাপত্তায় নিয়োজিত সেনাঘাঁটিতে ওই হামলার পর বর্তমানে আর মাত্র ১০০ বন্দি আছেন। এ হামলার জন্য তিনি স্থানীয় সশস্ত্র একটি বিদ্রোহী গোষ্ঠীকে দায়ী করেন।

কারাগার থেকে পালিয়ে যাওয়া বন্দিদের মধ্যে অন্তত ২০ জন পুনরায় ফিরে এসেছেন বলে মেয়র দাবি করেন।

পুলিশ জানিয়েছে, হামলা চলাকালে দুজন বন্দি গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন। তবে এখন পর্যন্ত কোনো গোষ্ঠী এ হামলার দায় স্বীকার করেনি।

১৯৯০ সাল থেকে কঙ্গোর পূর্বাঞ্চলে অ্যালাইড ডেমোক্র্যাটিক ফোর্স বা এডিএফ উগান্ডাভিত্তিক একটি সশস্ত্র গোষ্ঠী সক্রিয়।

২০১৯ সাল থেকে এডিএফের হাতে অন্তত এক হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। এই গোষ্ঠীকে দমনে সেখানে একাধিক সেনা অভিযানও চালানো হয়েছে।

কঙ্গোতে ২০১৭ সালেও একবার এমন হামলা হয়েছিল। সেবারও প্রায় একই সংখ্যক বন্দি পালিয়ে গিয়েছিলেন।