বাইডেন পরিবারের যত ‘অজানা’ তথ্য

Published: 6 November 2020, 1:35 PM

পোস্ট ডেস্ক : জো বাইডেন এবারের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ের দোরগোড়ায় পৌঁছে গেছেন।

তিনি এর আগে, বারাক ওবামার প্রশাসনে ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তার আগে ১৯৭৩ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত ডেমোক্রেটিক পার্টির হয়ে ডেলওয়ার থেকে সিনেটর নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। তবে জীবনে সফলতার পাশাপাশি পারিবারিক বেশ কিছু ধাক্কা সামলাতে হয়েছে তাকে।

ডেইলি মেইল এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ১৯৬৬ সালে নেইলিয়া হান্টারের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি। পরে সেই নারীর গর্ভে জন্ম নেয় বাইডেনের তিন সন্তান। কিন্তু তৃতীয় সন্তান জন্মের মাত্র এক বছর পর ঘটে যায় ভয়াবহ ঘটনা। সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ যায় বাইডেনের স্ত্রী ও কন্যার। এরপর তিন ও চার বছরের ছেলেকে বড় করে তোলার লড়াই শুরু হয় বাইডেনের। এরপর ১৯৭৭ সালে এসে জিল বাইডেনের সঙ্গে বন্ধুত্ব হয় জো বাইডেনের।

জিল আগে বিয়ে করেছিলেন। ২৪ বছর বয়সে সম্পর্কে বিচ্ছেদ ঘটে। সে কারণে এমন কাউকে খুঁজছিলেন, যার হাত আর কখনো ছাড়তে হবে না। জিল পরে বলেছেন, মৃত্যুর আগ পর্যন্ত জো বাইডেনের সঙ্গে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়ে ভুল করেননি। তাদের সন্তানরা আবারও মাকে হারাবে না। বিয়ের পর বাইডেনের ছেলেদের নিজের গর্ভের সন্তানের মতো করেই দেখেছেন জিল বাইডেন। পরে তাদের সংসারে মেয়ে অ্যাশলের জন্ম হয় ১৯৮১ সালে।
বারাক ওবামার সময় জো বাইডেন ভাইস প্রেসিডেন্ট হওয়ার ফলে আট বছর ধরে মার্কিন সেকেন্ড লেডি হিসেবে সম্মান পেয়েছেন জিল বাইডেন। ২০১৫ সালে এসে বাইডেনের এক ছেলে মারা যায়। সেই ধাক্কা কাটিয়ে উঠলেও সন্তানের সমাধিতে মাঝে মাঝেই ছুটে যান বাইডেন। উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে গত মঙ্গলবার। কিন্তু ফলাফল এখনও চারটি রাজ্যের ফলাফল প্রকাশ করা হয়নি। তবে, এ পর্যন্ত প্রাপ্ত ফলাফলে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন এগিয়ে আছেন।