কানাডায় চারজনকে গলাকেটে হত্যা, বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মিনহাজের যাবজ্জীবন

Published: 7 November 2020, 1:34 PM

পোস্ট ডেস্ক : বাবা-মাসহ পরিবারের চার সদস্যকে গলা কেটে হত্যার দায়ে কানাডায় বসবাসরত বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত তরুণ মিনহাজ জামানকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন অন্টারিওর একটি আদালত।

গত শুক্রবার নিউমার্কেটের সুপিরিয়র কোর্ট জাস্টিন মিশেল ফুয়ের্সট এই রায় ঘোষণা করেন। একই সঙ্গে আগামী ৪০ বছর মিনহাজের প্যারোল রহিত করা হয়েছে। মিনহাজ জামান যখন প্যারোলে কারাগারের বাইরে আসার সুযোগ পাবে তখন তার বয়স হবে ৬৪ বছর।

গত বছরের ২৮ জুলাই মারখামের একটি বাডিতে মিনহাজ তার বাবা মনিরুজ্জামান, মা মমতাজ বেগম, বোন মেলিসা জামান এবং বাংলাদেশ থেকে বেড়াতে আসা নানী ফিরোজা বেগমকে গলা কেটে খুন করে। গত ২৪ সেপ্টেম্বর আদালতে সে খুন করার দায় স্বীকার করে।

লিন্ডসে অন্টারিওর একটি কারেকশন সেন্টারে অবস্থানরত মিনহাজ ভিডিওর মাধ্যমে রায় শোনে। রায় ঘোষণার সময় সে নির্বিকার ছিলো এবং কোনো প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করেনি বলে কানাডিয়ান মিডিয়া উল্লেখ করেছে।

রায় ঘোষণা করতে গিয়ে বিচারক বলেন, গলা কেটে একজন মানুষের প্রাণ কেড়ে নেয়ার মতো নিষ্ঠুরতম আর কোনো কাজ হতে পারে না। মিনহাজ জামান কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে চার চারবার এই নৃশংসতম কাজটি করেছে।

মিনহাজ বিষয়টি স্বীকার করেছে জানিয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ড্রপ আউট হয়ে যাওয়ার পর সেটি পরিবারের সদস্যদের সে জানায়নি। বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওযার কথা বলে শপিং মলে, জিমে ঘুরে ফিরে সময় কাটিয়েছে সে। কিন্তু সেটি প্রকাশ হয়ে যাওয়ার পরিস্থিতি তৈরি হলে সে তাদের খুন করার সিদ্ধান্ত নেয়। আদালতে দেয়া বক্তব্যে মিনহাজ জানিয়েছে, সে যে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ে না সেটি পরিবারের সদস্যরা জেনে যাওয়ার উপক্রম হওয়ায় সে তাদের খুন করেছে।