নতুন অভিবাসন আইন পাশ
দক্ষ অভিবাসীদের ব্রিটেনে আসতে অগ্রাধীকারের ঘোষণা

Published: 12 November 2020, 7:38 PM

পোস্ট ডেস্ক : অভিবাসীদের জন্য ব্রিটেনের সংসদে নতুন আইন পাশ করা হয়েছে। নতুন এ আইনে যেমন দেয়া হয়েছে সুবিধা তেমনি অসুবিধাও রয়েছে অভিবাসীদের জন্য।

নতুন পাশ করা আইনে আগামী বছরের শুরু থেকে ইউরোপীয়ান নাগরিকদের অবাধ যাতায়াত বা ফ্রি মুভমেন্ট বন্ধ হয়ে যাবে। ফলে এই আইনে ইউরোপের নাগরিকদের ব্রিটেনে স্থায়ীভাবে বসবাসের আর কোনো সুযোগ থাকছে না।
১১ নভেম্বর ২০২০ সংসদে পাশ হওয়া ইমিগ্রেশন বিলের সংস্কারের মাধ্যমে নিজস্ব ইমিগ্রেশন আইনের ক্ষমতা পেল ব্রিটেন । এর ফলে এই প্রজন্মের জন্য প্রথমবারের মতো সীমান্তের উপর দেশটির সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ থাকবে। যা আগামী ৩১ ডিসেম্বর রাত ১১টা থেকে কার্যকর হবে।

হোম সেক্রেটারি প্রীতি প্যাটেল বলেছেন, এটি একটি “ঐতিহাহিক এবং গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্ত”এবং ইমিগ্র্যাশন সিস্টেমের প্রতি জনগণের আস্থা ফিরিয়ে আনা হয়েছে । নতুন এই আইন যুক্তরাজ্যের করোনাভাইরাস সংকটে ক্ষতিগ্রস্থ শ্রমিকদের চাকরির সুরক্ষায় সহায়তা করার ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। এদিকে, “সঠিক এবং ন্যায্য” এই নীতিতে ব্রিটেন সিদ্ধান্ত নেবে যে এই দেশে কে বা করা আসবে। তিনি আরো বলেন: “এই যুগান্তকারী আইনটি পাস হওয়ায় যুক্তরাজ্যের জন্য এটি একটি ঐতিহাসিক এক তাৎপর্যপূর্ণ মুহূর্ত, যা আমাদের নিজস্ব সিদ্ধান্ত নির্ধারণের ক্ষমতা দিয়েছে। “ আমরা বার বার ব্রিটিশ জনগণের কাছে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম যে, অবাধ যাতায়াত বন্ধ করে একটি সুষ্ঠু পয়েন্ট ভিত্তিক অভিবাসন ব্যবস্থা চালু করবো। “সুতরাং এই প্রতিশ্রুতি রাখতে আমরা সচেষ্ট হয়েছি”। ২০১৬ সালের গণভোটের মূল প্রতিপাদ্য ছিল অনিয়ন্ত্রিত মাইগ্রেশন বা অবাধ অভিবাসন নীতি রুধ। প্রীতি প্যাটেল বলেন আবেদনকারীরা কোথায় থেকে এসেছেন তার পরিবর্তে তাদের দক্ষতার উপর মূল্যায়ন করা হবে।

রয়্যাল অ্যাসেন্ট প্রাপ্ত ইমিগ্রেশন অ্যাক্ট, নিয়মগুলি নির্ধারণ করে যা কার্যকর হবে ব্রেক্সিট পরবর্তী সময় থেকে। অভিবাসীদের ব্রিটেনে কাজ করার অনুমতি পাওয়ার জন্য আবেদন করতে হবে এবং তাদের উপার্জন, ভাষা দক্ষতা এবং কর্মসংস্থানের স্থিতি ইত্যাদি দেখে অনুমুতি নির্ধারণ করা হবে। অভিবাসীদের নির্দিষ্ট যোগ্যতা বা কর্মীদের ঘাটতি রয়েছে এমন পেশাগুলির জন্যও পয়েন্টগুলি বিবেচনা করা হবে।