ওবায়দুল কাদের এর ভাইয়ের ডাকা হরতালে পুলিশের লাঠিচার্জ, আহত ২৫

Published: 20 February 2021, 7:14 AM

পোস্ট ডেস্ক :  নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে গোলাগুলির প্রতিবাদে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবুল কাদের মির্জার আহ্বানে হরতালের সমর্থনের মিছিলে পুলিশ লাঠিচার্জ করেছে।

আজ শনিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে হরতালের সমর্থনে মির্জা কাদেরের সমর্থিত নেতাকর্মী বসুরহাট বাজারের রুপালী চত্ত্বর থেকে জমায়েত হয়ে মিছিল নিয়ে থানার সামনে গেলে পুলিশ তাদের ওপর লাঠিচার্জ করে।

মির্জা কাদেরের সমর্থকদের দাবি, সকালের দিকে পুলিশের মারমুখী আচরণ করে এসময় পুলিশের লাঠি চার্জে তাদের ২৫জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে।

আহতরা হলেন, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক গোলাম ছারওয়ার, বসুরহাট পৌরসভা ৯নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি রাজীব, মাসুদ, পৌরসভা ৪নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, যুবলীগ নেতা আরজু সহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মী সমর্থক।

অপরদিকে, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোম্পানীগঞ্জে দুজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করা হয়। এছাড়া পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কোম্পানীগঞ্জে ৪০জন র‌্যাব ও ১১০জন পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর জাহিদুল হক রনি জানান, সকালে কাদের মির্জা ওসি এবং পরিদর্শক (তদন্ত) কে থানা থেকে বাহির করে দেওয়ার হুমকি দিয়ে থানায় এসে পুলিশের মুখের ওপর হাত নিয়ে অশ্লীল কথাবার্তা বলে। কাদের মির্জা পুলিশের সিনিয়র অফিসারদের সাথে গায়ে পড়ে মারমুখী আচরণ করে বিশৃঙ্খলা করার চেষ্টা করলে পুলিশ হট্টগোল সৃষ্টিকারীদের উপর লাঠিচার্জ করে।