বাংলাদেশে ইয়াবা সমেত আটক করিমগঞ্জের মাদক ব্যবসায়ী

Published: 13 April 2021, 9:45 AM

অরুপ রায় , করিমগঞ্জ, ১২ এপ্রিল : মাদক পাচারের করিডর যেন হয়ে উঠেছে সীমান্ত জিলা করিমগঞ্জ ।

সীমান্ত এলাকা থেকে একের পর এক চোরাচালান, মাদক পাচারের ঘটনা ঘটে গেলে আন্তর্জাতিক সীমান্তে সুরক্ষা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে । সোমবার মাদক সামগ্রী পাচার করে গিয়ে বাংলাদেশ আটক হয়ে ভারতের করিমগঞ্জ সদর থানার অন্তর্গত লাতু কান্দি এলাকার এক যুবক । বর্ডার গার্ড অব বাংলাদেশ বাহিনীর হাতে ধৃত যুবকের নাম মামন আহমেদ, পিতার নাম তুটিয়র রহমান । বয়স আনুমানিক ২১ বছর । বাড়ি মালেগড় বিএসএফ চৌকির পাশ্ববর্তী লাতুকান্দির কাঁটা তারের ওপারে । বাংলাদেশের সিলেট বিভাগের মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলার উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নের বড়াইল এলাকা থেকে ২০০ (দুই শত) পিস ইয়াবা সহ তাকে আটক করে পুলিশ সহ বিজিবি । বর্তমানে বড়লেখা থানায় রয়েছে মামন । বড়লেখা থানার ওসি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার তার আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেন ।অন্যদিকে বিএসএফের গোয়েন্দা শাখার তরফে ঘটনা নিয়ে তেমন কোন নিশ্চয়তা দেওয়া হয়নি । তবে লাতু কান্দির কাঁটা তারের ভিতরে থাকা গ্রামের মামন আহমেদ নামের এক যুবক নিখোঁজ রয়েছে বলে জানা গেছে বিএসএফ সূত্রে । মঙ্গলবার সকালে লাতু সীমান্তে বিএসএফ বিজিবি পতাকা বৈঠক আহ্বান করা হয়েছে । ঘটনা জুড়ে সোমবার রাত্র থেকে চাঞ্চল্য দেখা গেছে গোটা এলাকাজুড়ে । সীমান্ত সুরক্ষা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু হয়েছে । সেকেন্ড লাইন ডিফেন্স নিষ্ক্রিয় ভূমিকা অনেক প্রশ্ন উঠছে । বাংলাদেশে আটক মামন লাতু কান্দির নো ম্যান্স ল্যান্ডের বাসিন্দা হলে কাঁটা তারের ওপারে কিভাবে ইয়াবা ট্যাবলেট পৌঁছানো হলো এনিয়ে অনেক প্রশ্ন উঠছে এই মুহূর্তে । উল্লেখ্য ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে লাতু কান্দি থেকে দুই কিলোমিটার দূরে গবিন্দপুর গ্রামের বিনন্দ নমঃশূদ্র নামের এক মাদক কারবারি আটক হয়ে বিয়ানীবাজার সীমান্তে বাংলাদেশ রেবের হাতে ।

  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share