প্রতিদিন ওমরাহ পালন করছেন লাখো মুসল্লি

Published: 3 October 2021, 11:06 AM

পোস্ট ডেস্ক :


করোনা সংক্রমণ রোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পবিত্র মসজিদুল হারামে প্রতিদিন লাখো মুসল্লি ওমরাহ পালন করছেন। এর আগে প্রতিদিন ওমরাহ পালনকারীর সংখ্যা ৬০ হাজার থেকে ৭০ হাজার বাড়ানো হয়েছিল। তবে শুধুমাত্র টিকা নেওয়া মুসল্লিরা মসজিদুল হারামে এসে নামাজ, ওমরাহ পালন ও পরিদর্শন করতে পারবে। সৌদির হজ ও ওমরাহ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

করোনা সংক্রমণ রোধে দীর্ঘ ১৮ মাস বিদেশি ওমরাহ যাত্রীদের আগমন সাময়িক স্থগিত থাকে। এর পর গত ১৫ আগস্ট থেকে শুধুমাত্র টিকা নেওয়া বিদেশি মুসল্লিদের সৌদি আগমন শুরু হয়। তখন থেকে প্রতিদিন ৬০ হাজার মুসল্লি ওমরাহ পালন করেন। এরপর তা বাড়িয়ে ৭০ হাজার করা হয়।

পবিত্র দুই মসজিদের পরিচালনা পর্ষদের মুখপাত্র হানি বিন হোসনি হায়দার বলেন, পবিত্র মসজিদে হারামে ওমরাহ বা নামাজ আদায়ে আসা মুসল্লিদের সতর্কতামূলক সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। করোনা সংক্রমণ রোধে মসজিদে হারামে থার্মাল ক্যামেরা ও জীবাণুমুক্ত রাখতে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা সম্পন্ন অত্যাধুনিক রোবট, বায়ো কেয়ার রোবট ও স্টেরিজেশন পাম্প ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়াও ওমরাহ যাত্রীদের জন্য ৫০০ টি ইলেকট্রনিক সাবান সরবরাহকারী, এবং ২৫০টি ফ্যান বসানো হয়।

হায়দার আরো জানান, পরিচালনা পর্ষদ জমজম পানি বিতরণের সংখ্যা বাড়িয়েছে। ওমরাহ যাত্রী ও মুসল্লিদের মধ্যে প্রতিদিন তিন লাখ লিটার জমজম পানির বোতল বিতরণ করা হয়। এছাড়াও মসজিদ হারাম চত্বরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কোরআন হিফজের পাঠদান পর্ব ও ধর্মীয় আলোচনা অনুষ্ঠান পুনরায় চালু হয়।

মসজিদে হারাম কর্তৃপক্ষ বিশ্বের ১০টি ভাষায় অনুবাদ কার্যক্রম চালু করে। ওমরাহযাত্রীদের বিভিন্ন সেবা দিতে ইংরেজি, তার্কিশ, উর্দু, পার্সিয়ান, ফ্রেঞ্চ, রুশ, মালাই, বাংলা, চাইনিজ ও হাসুয়া ভাষায় অনুবাদ কার্যক্রম অব্যাহত আছে। এছাড়াও পাঁচ ভাষায় প্রতি জুমার খুতবা সরাসরি অনুবাদ করা হয়।

  • 32
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    32
    Shares