দীর্ঘ ১৫ বছর কারাবন্দীর পর সৌদি আলেমের ইন্তেকাল

Published: 13 October 2021, 9:41 AM

পোস্ট ডেস্ক :


দীর্ঘ ১৫ বছর কারাগারে বন্দী জীবন কাটিয়ে পরপারে পাড়ি জমিয়েছেন সৌদি আরবের একজন ইসলামী শিক্ষাবিদ ও দায়ি। গত মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) ইসলামী চিন্তাবিদ ড. মুসা বিন মুহাম্মদ আল করনি দীর্ঘদিন অসুস্থতায় ভুগে মারা যান। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স ছিল ৬৬ বছর।

মানবাধিকার সংগঠন সানাদের সূত্রে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাঁর মৃত্যুর খবর জানা যায়। অবশ্য সৌদি সরকারের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি।

সৌদির রাজনৈতিক ও নাগরিক অধিকার নিয়ে সোচ্চার যুক্তরাজ্য ভিত্তিক মানবাধিকার সংগঠন সানাদ এক টুইট বার্তায় জানায়, সৌদির কোনো কারাগারে ড. করনির মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

টুইট বার্তায় আরো বলা হয়, ‘ড. করনি দীর্ঘদিন যাবত অসুস্থতায় ভুগছিলেন। বেশ কয়েক বছর যাবত শারীরিকভাবে তিনি খুবই অসুস্থ থাকলেও কারাগারে তার চিকিৎসায় চরম অবহেলা করা হয়। তাছাড়া আটকের পর থেকে নানা ধরনের হয়রানি, নিপীড়ন ও দীর্ঘ সময় একাকিত্ব যাপন তাকে আরো অসুস্থ করে তুলে। কিন্তু কারা কর্তৃপক্ষ তার সুচিকিৎসার ব্যাপারে একদম উদাসীন ছিল।’

২০০৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে সৌদিতে মানবাধিকার সংগঠন প্রতিষ্ঠার দাবী জানানোর পর অন্যান্য মানবাধিকার কর্মীদের সঙ্গে ড. করনিকেও আটক করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে সন্ত্রাস ও রাষ্ট্রবিরোধী কাজে সম্পৃক্ততার অভিযোগে ২০ বছর কারাদণ্ড ও পরবর্তী ২০ বছর বিদেশভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। ২০১৮ সালের মে মাসে ড. করনি স্ট্রোক করেন। এরপর তাঁকে জেদ্দার একটি মানসিক হাসপাতালে নেওয়া হয়।

ড. মুসা বিন মুহাম্মদ আল করনি সৌদি ইসলামী শিক্ষাবিদ। ১৯৫৪ সালে জাজান নামক এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন। রিয়াদের বিখ্যাত শরিয়া কলেজে ইসলামী শরিয়া নিয়ে পড়াশোনা করেন। মক্কার উম্মুল কুরা বিশ্ববিদ্যালয়ে উসুললু ফিকাহ বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রি সম্পন্ন করেন।

তিনি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় মদিনার শরিয়া ও হাদিস বিভাগের অধ্যাপক ছিলেন। এছাড়াও মুহাম্মদ বিন সাউদ বিশ্ববিদ্যালয় ও উম্মুল কুরা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপনা করেন। পাকিস্তানের পেশাওয়ার ইউনিভার্সিটিতে শিক্ষকতা করেন। সেই সময় মুসলিম ওয়ার্ল্ড লিগ ও ইসলামিক রিলিফ অর্গানাইজেশনের ইসলামি অ্যাকাডেমি অব সাইন্সের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares