অভিনেত্রী জ্যাকুলিনের ৭ কোটি রুপি জব্দ

Published: 30 April 2022, 5:53 PM

পোস্ট ডেস্ক :


অভিযুক্ত প্রতারক সুকেশ চন্দ্রশেখরের ২০০ কোটি রুপি অর্থপাচারের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজের নামে থাকা প্রায় ৭ কোটি রুপি জব্দ করেছে ভারতের এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। জব্দ করা মোট অর্থের পরিমাণ ৭ কোটি ২৭ লাখ রুপি। এর মধ্যে আছে ৭ কোটি ১২ লাখ রুপি ফিক্সড ডিপোজিট এবং ১৫ লাখ রুপি। অভিনেত্রীর জন্য এই অর্থ একজন স্ক্রিপ্ট লেখকের মাধ্যমে দিয়েছেন চন্দ্রশেখর। এ খবর দিয়ে অনলাইন এনডিটিভি বলেছে, র‌্যানব্যাক্সির সাবেক মালিক শিভিন্দর সিংয়ের পরিবারের কাছ থেকে চন্দ্রশেখর চাঁদাবাজির মাধ্যমে আদায় করেছেন ২০০ কোটি রুপি। শিভিন্দর সিংকে অর্থপাচারের মামলায় জেল দেয়া হয়েছে ২০১৯ সালে। চাঁদার মাধ্যমে আদায় করা ওই অর্থ থেকে অভিনেত্রী জ্যাকুলিনকে ৫ কোটি ৭১ লাখ রুপি উপহার হিসেবে দিয়েছেন চন্দ্রশেখর। শিভিন্দর সিংয়ের স্ত্রী অদিতি সিংয়ের অভিযোগের ভিত্তিতে চন্দ্রশেখরের বিরুদ্ধে মামলা হয়। মামলায় বলা হয় শিভিন্দর সিংকে মামলা থেকে মুক্তি দেয়া হবে। বিনিময়ে ওই ২০০ কোটি রুপি অর্থ পরিশোধ করতে হবে চন্দ্রশেখরকে

এ ঘটনায় অনেক পানি ঘোলা হয়েছে। তবে চন্দ্রশেখরের বিরুদ্ধে তদন্ত বিস্তৃত হয়েছে। তার বিলাসবহুল জীবন দেখতে পায় তদন্তকারীরা। চেন্নাইয়ে সাগরমুখী একটি ম্যানসন আছে তার। আছে ২৩টি গাড়ি। এর মধ্যে আছে ফেরারি, বেন্টলে এবং রোলস রয়সে মডেলের গাড়ি। চন্দ্রশেখরের সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়ে জ্যাকুলিনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন তদন্তকারীরা। জবাবে তিনি জানিয়েছেন চন্দ্রশেখরের কাছ থেকে তিনি এক লাখ ৫০ হাজার রুপি ঋণ নিয়েছেন। উপহার পেয়েছেন একটি ঘোড়া, যার মূল্য ৫২ লাখ রুপি। একটি পারসিয়ান বিড়াল পেয়েছেন উপহার। এর মূল্য ৯ লাখ রুপি। জেমস বসানো কানের দুল পেয়েছেন। পেয়েছেন হার্মেস ব্রান্ডের ব্রেসলেট। একটি মিনি কুপার কার পেয়েছিলেন উপহার। তবে তা তিনি পরে ফেরত দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন। কেন্দ্রীয় তদন্তকারীরা আরও দেখতে পেয়েছেন, ফেসবুকের অনেক অভিনেতার পরিবারকে বিপুল পরিমাণ অর্থ দিয়েছেন চন্দ্রশেখর। জেল থেকে লেখা চন্দ্রশেখরের একটি চিঠি এ বছর প্রকাশ করেছেন তার আইনজীবীরা। তাতে তিনি বলেছেন, অভিনেত্রী জ্যাকুলিনের সঙ্গে তার অন্যদের মতোই স্বাভাবিক সম্পর্ক ছিল।