সিলেটের রায়হান হত্যা: আরেক পুলিশ সদস্য গ্রেপ্তার

Published: 29 October 2020, 8:20 AM

সিলেট অফিস : রায়হান হত্যা মামলায় সিলেট বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির প্রত্যাহারকৃত এএসআই আশেক এলাহীকে গ্রেপ্তার করেছে মামলার তদন্তকারী সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। বুধবার রাতে পিবিআই’র একটি দল পুলিশ লাইন্স থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে।

রায়হান হত্যাকাণ্ডের পর এএসআই আশেক এলাহীসহ তিন পুলিশ সদস্যকে বন্দরবাজার ফাঁড়ি থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছিল। আর ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আকবরসহ চারজনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

গত ১২ই অক্টোবর সকাল ৬টা ৪০ মিনিটে নগরীর নেহারীপাড়ার মৃত রফিকুল ইসলামের ছেলে রায়হান আহমদকে গুরুতর আহতাবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন এএসআই আশেক এলাহী। প্রায় এক ঘণ্টা পর সকাল ৭টা ৫০ মিনিটে হাসপাতালে মারা যান রায়হান।

পিবিআই সূত্র জানায়, এএসআই আশেকে এলাহীকে আদালতে হাজির করে ৭ দিনের রিমান্ড চাওয়া হবে। এর আগে একই ঘটনায় কনস্টেবল টিটু চন্দ্র দাস ও কনস্টেবল হারুনুর রশিদকে গ্রেপ্তার করে রিমান্ডে নেয় পিবিআই।

পিবিআই সিলেটের পুলিশ সুপার মো. খালেদুজ্জামান জানান, এএসআই আশেক এলাহী পুলিশ লাইন্সে থাকলেও সে পিবিআই’র নজরদারিতে ছিল। বুধবার রাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তিনি বলেন, পিবিআই ধাপে ধাপে কাজ করে যাচ্ছে। লাপাত্তা হওয়া এসআই আকবরকে ধরতে পিবিআই-এর একাধিক টিম কাজ করে যাচ্ছে।