চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গোলখরা কাটছেই না এমবাপ্পের

Published: 3 November 2020, 3:00 PM

পোস্ট ডেস্ক : এই সপ্তাহে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ফের আরবি লিপজিগের মুখোমুখি হতে যাচ্ছে প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি)।

ইউরো আসরে এখনো খোলসবন্দি হয়ে আছেন এমবাপ্পে। অথচ এই ইউরোপীয় আসরেই এই তরুণ তুর্কী সবার নজরে এসছিলেন। ২০১৭ সালে মাত্র ১৮ বছর বয়সে তিনি মোনাকোর হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ছয় গোল করেছিলেন। সেখানে নকআইট পর্ব ছাড়াও ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে রয়েছে দুই গোল। ফলে আসরের সেমি-ফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছিল তার ক্লাব।

পিএসজির হয়ে অভিষেকেই ইউরো আসরে ১৯ গোল করে রেকর্ড গড়েছিলেন এমবাপ্পে। তার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের অধিকাংশ গোলই ২১ বছর বয়সের আগে। কিন্তু এর পর ছন্দ হারিয়ে ফেলেন তিনি। ২০২০ সালে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ৭টি ম্যাচ খেলেছেন। কিন্তু গোলের দেখা পাননি। এর মধ্যে সর্বশেষ ম্যাচটি খেলেছেন ইস্তাম্বুল বাসাকসেহিরের বিপক্ষে। ওই ম্যাচে ২-০ গোলে জয়লাভ করে পিএসজি। তবে এর মানে এই নয় যে পিএসজির হয়ে সম্প্রতি ইউরো আসরে এমবাপ্পে কিছুই করেননি।

এমবাপ্পের দুর্দান্ত গতি লিসবনে আটালান্টার বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালে ঘুরে দাঁড়াতে সাহায্য করেছে দলকে। যদিও ইনজুরির কারণে তাকে বদলি খেলোয়াড়ের খাতার নাম লেখাতে হয়েছে। এমনকি লিপজিগের বিপক্ষে নিজ দলের ৩-০ গোলের জয়ের নেপথ্যে বড় ভুমিকা রেখেছিলেন এমবাপ্পে। যার ফলে ক্লাবের ইতিহাসে প্রথমবারের মত ফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছিল পিএসজি। ফাইনালে অবশ্য বায়ার্ন মিউনিখের কাছে হেরে শিরোপা বঞ্চিত হয় তারা।

ইস্তাম্বুলে গত সপ্তাহে ধারে যোগ দেয়া মইসে কিনের দুটি গোলই বানিয়ে দিয়েছিলেন এমবাপ্পে। পিএসজি কোচ থমাস টুখেলকে ওই সময় ১৮০ মিলিয়ন ইউরোর ওই তারকার ফর্মের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে জবাবে তিনি বলেছিলেন, ‘সে খুবই তরুণ। এখনো উন্নতির অনেক কিছু বাকি আছে। আমরা জানি সে আমাদের দলের মূল খেলোয়াড়।’

নঁতের বিপক্ষে লিগ ওয়ানের ম্যাচে পেনাল্টি থেকে গোল করার পর এমবাপ্পে আরেকটি গোলে সহায়তা করেছিলেন। পরে ডান পায়ের হ্যামস্ট্রিং ইনজুরি নিয়ে তিনি মাঠ ছাড়লেও সেটিকে ‘হালকা’ বলে চালিয়ে দিয়েছেন টুখেল। পাশাপাশি লিপজিগের বিপক্ষে ম্যাচে তাকে পাওয়া যাবে বলেও নিশ্চয়তাও দিয়েছেন।

প্যারিস জায়ান্টদের হয়ে ঘরোয়া লিগে সর্বশেষ ছয় ম্যাচ থেকে ৭ গোল আদায় করেছেন আগামী ডিসেম্বরে ২২ বছর বয়সে পদার্পণ করতে যাওয়া এমবাপ্পে। এমনকি তিনি সম্প্রতি অনুষ্ঠিত নেশন্স লিগের ম্যাচে ফ্রান্স জাতীয় দলের হয়ে ক্রেয়েশিয়ার বিপক্ষে জয়সুচক গোলটিও করেছেন। গত দুই মৌসুমে লিগ ওয়ানে শীর্ষ গোলদাতার আসন লাভ করা এমবাপ্পে ফ্রান্সের হয়েও শীর্ষ গোলদাতার আসনে রয়েছেন।

খন পিএসজির দরকার লিপজিগের বিপক্ষে গুরুত্বপুর্ণ ম্যাচে তাকে গোলে ফেরানো। ‘এইচ’ গ্রুপে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রথম ম্যাচে ইউনাইটেডের কাছে হেরে কিছুটা বেকায়দায় রয়েছে কাতারি মালিকানাধীন ক্লাবটি। জার্মান সফরে পিএসজির হয়ে খেলার সম্ভাবনা আগেই শেষ হয়ে গেছে নেইমারের।