যোগাযোগ ব্যবস্হায় ভোগান্তির অপর নাম সিলেট টু বিয়ানী বাজার রোড

Published: 6 December 2020, 7:59 PM

।। মো: নাজিম উদ্দিন ।।
সিলেট হচ্ছে দেশের একটি গুরুত্বপুর্ন এবং নান্দনিক বিভাগীয় শহর।এই নান্দনিক বিভাগীয় শহরে দেশ-বিদেশ থেকে প্রয়োজনীয় কাজে অথবা বেড়াতে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ যাতায়াত করেন।তাই এই শহরের সাথে দেশের অন্যান্য এলাকার রয়েছে উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্হা।বিশেষ করে সিলেট জেলার অন্যান্য উপজেলার সাথে সিলেট বিভাগীয় শহরের যোগাযোগের যে রাস্তাগুলো রয়েছে সেগুলো অনেক প্রশস্ত,টেকসই এবং যোগাযোগের ক্ষেত্রে অনেক আরামদায়ক।

 

সময়ের সাথে সাথে সেই সড়কগুলোর সংস্কার,পরিবর্ধন এবং পরিমার্জন হচ্ছে নিয়মিত।কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য আমাদের বিয়ানী বাজারের সাথে সিলেট বিভাগীয় শহরের যোগাযোগের একমাত্র সিলেট টু বিয়ানী বাজার রাস্তাটি এখানকার মানুষের ভোগান্তির আরেক নাম।রাস্তাটিতে যখন বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয় তখন কর্তৃপক্ষ সেই গর্তগুলোকে সংস্কার করেন নিজেদের দায় মুক্তির জন্য।একটি দেশের উন্নয়নের প্রধান শর্ত হলো সেদেশের যোগাযোগ ব্যবস্হার উন্নতি।সে কথা মাথায় রেখে যখন দেশের অন্যান্য অঞ্চলে যোগাযোগ ক্ষেত্রে বিপ্লব সাধিত হচ্ছে তখন আমাদের সিলেট টু বিয়ানী বাজার রাস্তাটি পড়ে আছে অবহেলা আর অনাদরে।রাস্তাটি প্রশস্ত করা দুরের কথা যতটুকু আছে তারও সংস্কারের কোন উদ্যোগ নেই।

এখানকার যারা বড় বড় রাজনীতিবিদ যারা মানুষের কল্যানের নামে রাজনীতি করেন, মুখে সাধারন মানুষকে বড় বড় স্বপ্ন দেখান তাদের কারো মুখে এই রাস্তাটিকে বর্তমান আধুনিক যুগের সাথে তাল মিলিয়ে যুগোপযোগী করার কথা কারো মুখে শুনা যায় না।এখানকার হাজার হাজার মানুষ প্রবাসে বসবাস করেন যাদের পাঠানো রেমিটেন্স দেশের অর্থনীতির অগ্রযাত্রায় গুরুত্বপুর্ন অবদান রাখছেন।অথচ এই প্রবাসীরা দেশে বেড়াতে আসলে যোগাযোগ ক্ষেত্রে কি যে ভোগান্তির স্বীকার হন তা বলাই বাহুল্য।দেশ যেখানে এগিয়ে যাচ্ছে,দেশের প্রতিটি অঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্হা যেখানে আধুনিক হচ্ছে সেখানে এই অঞ্চলের যোগাযোগের একমাত্র রাস্তাটির আধুনিকায়ন নিয়ে কারো মুখে কোন কথা বা দাবী তুলতে শুনি না।যার ফলে বর্তমান আধুনিক যুগে সিলেট টু বিয়ানী বাজারের মাত্র ৫২ কিলোমিটারের ১ ঘন্টা দুরত্বের এই রাস্তাটি দিয়ে সাধারন মানুষকে কমপক্ষে ২ ঘন্টায় যাতায়াত করতে হয়।শুধু তাই নয় রাস্তাটিতে বড় বড় গর্তের কারনে বিভিন্ন সময়ে নানা দুর্ঘটনা সহ অসংখ্য প্রানহানিও ঘটে।

যারা প্রতিনিয়ত নিজেদের পরিবার-পরিজন নিয়ে এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করেন তাদের ভোগান্তির কোন শেষ নেই।দেশের অন্যান্য এলাকার মানুষজনও বিয়ানী বাজার বেড়াতে গেলে এই রাস্তার দৈন্যদশা দেখে যখন নেতিবাচক কথা বলেন তখন সত্যি লজ্জা লাগে।এখানকার যারা রাজনীতিবিদ,সুশিল সমাজ ও সাংবাদিক সবাই সমস্বরে এই রাস্তাটির প্রশস্তিকরন,আধুনিকায়ন ও সংস্কারের দাবী তুললে তা অবশ্যই যথাযত কর্তৃপক্ষের নজরে আসতে বাধ্য।

তাই প্রত্যাশা করি আমাদের সবার যোগাযোগের এই মহাসড়কটিকে চলাচলের উপযোগী ও আধুনিকায়ন করার আওয়াজ তুলবেন।সেই সাথে প্রত্যাশা করি এখানকার হাজার হাজার মানুষের দুর্ভোগের কথা চিন্তা করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ রাস্তাটিকে নিয়ে একটি যুগোপযোগী পরিকল্পনা প্রনয়নের মাধ্যমে আধুনিক ও উন্নত যোগাযোগ ব্যস্হা গড়ে তুলতে এগিয়ে আসবেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •