বোতল নিয়ে জনতার উদ্দেশ্যে তেড়ে আসলেন বিচারক!
মৌলভীবাজারে প্রবাসীর বাসা ভাড়া নিয়ে দখল ছাড়ছেন না বিচারক।। প্রতিবাদে মানববন্ধন

Published: 4 August 2022, 3:09 PM

মৌলভীবাজার সংবাদদাতা :


মৌলভীবাজারে এক যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী নারীকে হয়রানি ও তাঁর বাসা দখলের অভিযোগ উঠেছে জেলার এক সাবেক ম্যাজিষ্ট্রেটের বিরুদ্ধে। এমনকি প্রবাসীর বাসা না ছাড়তে তিনি আদালতে মামলাসহ নানা পন্থা অবলম্বন করছেন।

কাজিরগাওস্থ আমেরিকা প্রবাসী আফিয়া বেগমের বাসা দখল ও এলাকাবাসীদের হয়রানির প্রতিবাদে জেলার সাবেক ম্যাজিস্ট্রেট ফারুক আহমেদ’র বিরুদ্ধে মানববন্ধন করেছেন ভুক্তভোগীরা। ওসি ইয়াসিনুল হক জানিয়েছেন, ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বিচারককে সরিয়ে দেয়।

বৃহস্পতিবার (৪আগস্ট) দুপুরে মৌলভীবাজার প্রেসক্লাব মোড়ে মানববন্ধন ও রাস্তা অবরোধ করে রাখে ভুক্তভোগীরা ।

মানববন্ধনে ভুক্তভোগীরা জানান আমরা সাধারণ মানুষ তার জন্য নিরাপদে বসবাস করতে পারি না, নিরাপদে চলাচল করতে পারি না, ঘুমাতে পারি না, মামলা হামলার হুমকি দেখায় এমনকি আমাদের অনেককে জেলেও দিয়েছে।

কাজিরগাও এলাকার আফিয়া বেগমের বাসার কেয়ারটেকার মোহাম্মদ হেলাল বলেন, ফারুক আহমেদ আমাদেরকে ব্যবসা বাণিজ্য করতে দিচ্ছে না, আমাদের বাসা-বাড়িতে গিয়ে প্রতিনিয়ত মামলা হামলার হুমকি দিচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, যদি তোমরা আমার বিরুদ্ধে কিছু করো তাইলে আমি পুলিশ, র‌্যাব নিয়ে তোমাদেরকে গুম করে দিব। আরেক ভুক্তভোগী কাজিরগাওয়ের বাসিন্দা জুয়েল আহমদ বলেন, সে আমার দোকানে এসে আমাকে বিভিন্ন রকম হুমকি দেয়। এমনকি সে আমাকে এক পর্যায়ে মেরে জখম করে তার বিরুদ্ধে কথা বলায় আমার এলাকার অনেককেই তার মামলায় জেলে যেতে হয়েছে। আমি এখন শঙ্কায় আছি কখন জানি আমার উপরে তার বাহিনী হামলা চালায়।

মানববন্ধন চলাকালে এক পর্যায়ে ফারুক আহমেদ হাতে বোতল নিয়ে মানববন্ধন প্রতিহত করতে আসলে মানববন্ধনকারীরা একে এসিড বলে দাবী করেন এবং তাদের উপর ক্ষিপ্ত হন । এতে পুলিশ প্রশাসন তাকে নিরাপত্তা দিয়ে এখান থেকে সরিয়ে দেন।

অভিযুক্ত, সাবেক ম্যাজিস্ট্রেট ফারুক আহমেদের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, আমি নভেম্বর পর্যন্ত ভাড়া পরিশোধ করেছি। এখন লন্ডনী প্রবাসী হারুন মিয়া এসে আমাকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে ও আমার বাচ্চাদের নির্যাতন করে। এসব সহ্য করতে না পেরে আমি কোর্টে একটি মামলা দায়ের করেছি এই মামলা চলমান রয়েছে। কোর্টে যেহেতু মামলা চলমান রয়েছে আমি কোর্টের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বাসা ত্যাগ করবো।