অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন গ্রহণের পর রক্তের জটিলতা অতি বিরল: গবেষণা

Published: 10 June 2021, 4:11 PM

পোস্ট ডেস্ক :


অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিনের সঙ্গে মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বাধার কোনো সংযোগ খুঁজে পাননি বিজ্ঞানীরা। তবে সম্প্রতি হওয়া ওই গবেষণায় প্রায় ঝুঁকিহীন রক্তক্ষরণের বিরল একটি অবস্থার সঙ্গে ভ্যাকসিনের স¤পর্ক পাওয়া গেছে। স্কটল্যান্ডে হওয়া এই গবেষণাটির নেতৃত্বে ছিলেন এডিনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর আজিজ শেখ। তিনি স্কটল্যান্ডের ৫৪ লাখ মানুষের তথ্য সংগ্রহ করে এই গবেষণাটি করেছেন। এতে জানা গেছে, অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন গ্রহণের পর প্রতি ১ লাখ মানুষের মধ্যে মাত্র ১ জনের মধ্যে এই বিরল সমস্যাটি দেখা যেতে পারে। এই অবস্থা পরিচিত আইটিপি নামে। এ সময় শরীরে প্লাটিলেটের সংখ্যা কমে যায়। তবে এখনো এতে কোনো মৃত্যুর ঘটনা রেকর্ড করা হয়নি।

বুধবার এই গবেষণাটি প্রকাশ করা হয় ন্যাচার মেডিসিন জার্নালে। এতে এক ধরণের রক্তক্ষরণের সঙ্গে ভ্যাকসিনের অ¯পষ্ট সংযোগের দাবি করা হয়। তবে মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বাধা নিয়ে ইউরোপে যে উদ্বেগের সৃষ্টি হয়েছিল তার সঙ্গে অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিনের কোনো স¤পর্ক পাওয়া যায়নি। যদিও সংবাদ সম্মেলনে আজিজ বলেছেন, মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বাধার বিষয়টি হয়তো এতটাই বিরল যে তার এই গবেষণা হয়ত সেটি নিয়ে উপসংহারে পৌঁছানোর জন্য যথেষ্ট বড় নয়। তবে এই সমস্যাগুলো যে অনেক বিরল সে বিষয়ে একটি স্পষ্ট বার্তা দেয় এই গবেষণা। তিনি আরো যুক্ত করেন, গবেষণায় পাওয়া তথ্য আমাদেরকে ভ্যাকসিনের বিষয়ে আশ্বস্ত করেছে। তাই আমরা মানুষদের বলবো, যখনই ভ্যাকসিন গ্রহণের তারিখ চলে আসবে, সবাই যেনো ভ্যাকসিন গ্রহণ করেন।

এর আগে বৃটেনের ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা এমএইচআরএ জানিয়েছিল, অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন দেয়ার পর রক্তে প্লাটিলেটের পরিমাণ কমে যাওয়া ও মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বাধার ঘটনা অত্যন্ত বিরল। এটি প্রতি ১ লাখ জনে ১.৩ জনের মধ্যে দেখা যায়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •